সিবিআই প্রধান অলোক ভার্মাকে অপসারিত করার কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত সুপ্রিম কোর্ট খারিজ করার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ক্ষমা চাইতে হবে বলে দাবি তুলল কংগ্রেস। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পর কংগ্রেস মুখপত্র রণদীপ সূরজওয়ালা বলেন, অলোক ভার্মার যে তিন মাস নষ্ট হয়েছে, তা তাঁকে ফেরত দেওয়া হোক। নয়তো স্পষ্ট হয়ে যাবে রাফাল দুর্নীতি মামলা বন্ধ করতেই তাঁকে সরানো হয়েছিল।
অলোক ভার্মাকে নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায় প্রসঙ্গে রাহুল গান্ধী বলেন, কোনও কিছুই রাফাল ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীকে বাঁচাতে পারবে না।
প্রসঙ্গত, অলোক ভার্মাকে অপসারণের পরই বিরোধীরা প্রশ্ন তুলেছিল, রাফাল মামলার ফাইল নিয়ে নাড়াচাড়া শুরু করেছিলেন অলোক ভার্মা, সেই কারণেই তাঁকে তড়িঘড়ি মাঝরাতে সরিয়েছে কেন্দ্র। যদিও, বিরোধীদের এই অভিযোগ খারিজ করে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি জানিয়েছেন, সিবিআই-এর নিরপেক্ষতার স্বার্থে দুই শীর্ষ আধিকারিককে সরানো হয়েছিল।
এদিন আলোক ভার্মার মামলার জেরে সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রের সিদ্ধান্তকে খারিজ করে তাঁকে ফের সিবিআই প্রধানের পদে বসাতে নির্দেশ দিয়েছে। এই নির্দেশকে স্বাগত জানাল বিরোধীরা। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীওয়াল বলেন, দেশের সরকারি সংস্থাগুলির স্বাধীনতা খর্ব করছে বিজেপি সরকার। সুপ্রিম কোর্টের এই রায়কে স্বাগত। পিডিপি প্রধান মেহেবুবা মুফতি এপ্রসঙ্গে ট্যুইট করেন, শীর্ষ আদালতের এই রায়ে আরও একবার প্রমাণিত হল, আদালতের নিরপেক্ষতার। সিপিএম সাংসদ মহম্মদ বলেন, সুপ্রিম কোর্টের রায় কেন্দ্রের গালে চপেটাঘাত। রাফাল তদন্ত বন্ধ করতেই সিবিআই প্রধানকে সরানো হয়েছিল।
আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণ সুপ্রিম কোর্টের এই রায়কে আলোক ভার্মার জন্য ‘আংশিক জয়’ বলে ব্যাখ্যা করেন।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরণের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Subscribe