জম্মু-কাশ্মীরে বর্তমান পরিবেশের জন্য অনেকাংশেই দায়ী স্থানীয় বাসিন্দারা, বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠকে এমনই মন্তব্য করলেন ভারতের সেনা প্রধান বিপিন রাওয়াত। তিনি বলেন এই পরিস্থিতিতে ভারতীয় সেনা সর্বতোভাবে প্রচেষ্টা করছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের। তবে দেশের অন্যান্য সীমান্ত এলাকায় সুস্থিতি বজায় রয়েছে বলে জানান ভারতীয় সেনা প্রধান।
জেনারেল বিপিন রাওয়াত মনে করেন, ভারতের যদি আফগানিস্তান নিয়ে আগ্রহ থাকে তবে অতি সত্বর সরকারের উচিত আলোচনা করার। তিনি বলেন, অন্য দেশগুলি যদি তালিবানের সঙ্গে আলোচনা করে তাহলে এদেশেরও পিছিয়ে থাকা উচিত নয়। তালিবানের সঙ্গেও আলোচনা করা উচিত। অন্যদের থেকে পিছিয়ে পড়া উচিত হবে না। তবে তাঁর সাফ বক্তব্য, এই যুক্তি কাশ্মীরের ক্ষেত্রে খাটবে না।
কিন্তু সেনা প্রধান একথা বললেও তালিবানের সঙ্গে আপাতত কোনও আলোচনা না করাই ভারতের সরকারি অবস্থান। আমেরিকা থেকে শুরু করে রাশিয়া,ইরান বা পাকিস্তান তালিবানের সঙ্গে আলোচনা চালাচ্ছে।
অন্যদিকে, সেনা প্রধানের কাশ্মীর প্রসঙ্গে মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে পিডিপি প্রধান মেহেবুবা মুফতি প্রশ্ন তুলেছেন, যদি তালিবানের সঙ্গে আলোচনা করা যায় জম্মু-কাশ্মীরে নিজের দেশের মানুষের সঙ্গে কেন আলোচনা সম্ভব নয়? তাঁর যুক্তি পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনায় বসা উচিত সরকারের। কাশ্মীরের হিংসার ঘটনা ঠেকাতে সরকারের কাশ্মীরের বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে আলোচনায় বসা উচিত বলে ট্যুইট করেন জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

You may also like