বিজেপির রথযাত্রা মামলায় রাজ্য সরকারকে নোটিশ পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দেয়, বিজেপির রথযাত্রা প্রসঙ্গে আবার বিবেচনা করুক রাজ্য সরকার। আগামী ১৫ ই জানুয়ারি, মঙ্গলবার রথযাত্রা নিয়ে চূড়ান্ত রায় দেবে শীর্ষ আদালত।
চূড়ান্ত রায় তাঁদের পক্ষেই যাবে বলে আশাবাদী বিজেপি নেতৃত্ব। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এদিন বলেন, ১৫ তারিখ রায় ঘোষণার পরেই তাঁরা রথ বের করবেন। তবে রথযাত্রার সফর কাটছাঁট করা হয়েছে। কোচবিহার, গঙ্গাসাগর ছাড়াও হলদিয়া থেকে রথযাত্রা বের করার ইচ্ছে রয়েছে বলে জানান দিলীপবাবু। ২০ দিনের মধ্যে রাজ্যের সবকটি লোকসভা কেন্দ্রকে ছুঁয়ে যাওয়ার লক্ষ্য রয়েছে বিজেপির।
১৭ জানুয়ারি রাজ্যে আসছেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। সেদিনই কোচবিহার থেকে রথযাত্রার উদ্বোধন করতে পারেন তিনি। ২০ দিনে মোট ৪ টি রথ বের করা হবে বলে খবর।
মঙ্গলবার শীর্ষ আদালতে রাজ্যের তরফে একটি রিপোর্ট দেওয়া হয়। ওই রিপোর্টে সরকার দাবি করেছে, বিজেপির রথযাত্রায় গণ্ডগোলের আশঙ্কা রয়েছে। এরপর রাজ্যের চূড়ান্ত মতামত চেয়ে নোটিশ পাঠায় সুপ্রিম কোর্ট।
প্রসঙ্গত, কয়েকমাস ধরেই বিজেপির রথযাত্রা আটকে রয়েছে নানান টালবাহানায়। লালবাজারে সরকার পক্ষের সঙ্গে বৈঠকের পর প্রশাসনের তরফে রথযাত্রায় না বলে দেওয়ার পর দ্বিতীয়বারের জন্য আদালতের দ্বারস্থ হয় বিজেপি। সরকার-বিজেপির দীর্ঘ টালবাহানার বিজেপির রথযাত্রায় শর্তসাপেক্ষে অনুমতি দেন বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর সিঙ্গল বেঞ্চ। কিন্তু রায়ের পরদিনই তাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ডিভিশন বেঞ্চে আবেদন করে রাজ্য। রথযাত্রায় স্থগিতাদেশের রায় দেয় ডিভিশন বেঞ্চ। এরপর বিজেপি সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করে।