আইএএস অফিসারের পদ থেকে শাহ ফয়জলের ইস্তফার ঘটনায় বিজেপিকে একহাত নিলেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী এবং কংগ্রেস নেতা পি চিদম্বরম। মাত্র ২৬ বছর বয়সে শাহ ফয়জল ২০১০ সালে সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় শীর্ষস্থান অধিকার করেছিলেন। এরপরই তিনি জম্মু-কাশ্মীরে ইয়ুথ আইকন হয়ে উঠেছিলেন। কিন্তু জম্মু-কাশ্মীরে ক্রমাগত হিংসার ঘটনা এবং সংখ্যালঘু মুসলিমদের ওপর অত্যাচারের অভিযোগ তুলে সোমবার চাকরি থেকে ইস্তফা দেন তিনি।
বৃহস্পতিবার, এই পরিপ্রেক্ষিতে পি চিদম্বরম বেশ কয়েকটি ট্যুইট করেন। তিনি লেখেন, শাহ ফয়জলের আক্রোশ এবং দ্বন্দ্ব মূলত কেন্দ্র সরকারের অপদার্থতার ফল। তিনি শাহ ফয়জলের পাশে দাঁড়িয়ে বলেন, তাঁর প্রতিটি অভিযোগ সত্যি। চিদম্বরম লেখেন, শাহ ফয়জলের ইস্তফা অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা, তবে তাঁকে সাহসিকতার জন্য কুর্নিশ। কংগ্রেস নেতা এপ্রসঙ্গে পঞ্জাবের প্রাক্তন ডিজিপি তথা প্রাক্তন মুম্বই পুলিশ কমিশনার জুলিও রিবেরোর উদাহরণ টেনে বলেন, তাঁর মতোই সাহসী শাহ ফয়জল। চিদম্বরম বলেন, ফয়জলের মতো একজন আইএএস অফিসার যখন দেশে সংখ্যালঘুদের ওপর আক্রমণের অভিযোগ তোলেন, তখন লজ্জায় মাথা হেঁট হয়ে যায় আমাদের। যদিও, এতে বিজেপি সরকারের কিছু যায় আসে না।
প্রসঙ্গত, শাহ ফয়জল গত ৯ জানুয়ারি তাঁর কাজ থেকে অব্যাহতি দিয়ে ফেসবুক পোস্টে তাঁর তিক্ত অভিজ্ঞতা ব্যক্ত করেছিলেন। জম্মু-কাশ্মীরে লাগাতার খুনের ঘটনায় কেন্দ্র সরকার কোনও পদক্ষেপ নিচ্ছেনা বলে অভিযোগ করেন ফয়জল। তাঁর অভিযোগ, হিন্দুত্ববাদীদের হাতে প্রতিনিয়ত হেনস্থা হচ্ছেন মুসলিমরা। তাঁদের দ্বিতীয় শ্রেণীর নাগরিকের পরিচয় দেওয়ার চেষ্টা চলছে। এই পরিস্থিতিতে তিনি আর আমলার পদে থাকতে চান না বলে ফেসবুকে লেখেন শাহ ফয়জল।