আসন্ন লোকসভা নির্বাচনই দেশের শেষ ভোট। এই লোকসভা ভোটে নরেন্দ্র মোদীর জয়লাভের পর ২০২৪ সালে আর কোনও নির্বাচন হবে না। উত্তর প্রদেশের উন্নাওয়ের ভরা সভায় বিস্ফোরক দাবি বিজেপি সাংসদ সাক্ষী মহারাজের।
বৃহস্পতিবার নিজের নির্বাচনী কেন্দ্র উন্নাওয়ের এক দলীয় সভায় সাক্ষী মহারাজ বলেন, মানুষের কাছে তাঁর আবেদন, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে সবাই অবাধে ভোট দিক। কারণ আগামী ২০২৪ সালে আর সাধারণ নির্বাচন হবে না।
কিন্তু বিজেপি সাংসদের হঠাৎ করে এমন মন্তব্য কেন? সাক্ষী মহারাজের নিজের কথায়, তিনি একজন সন্ন্যাসী। তাই ভবিষ্যৎ দেখতে পান। সাক্ষী মহারাজের ভবিষ্যদ্বাণী, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনই দেশের শেষ নির্বাচন।
যদিও, সাক্ষী মহারাজের এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে, উত্তর প্রদেশের এক বিজেপি নেতা জানান, কেউই আর ৬৩ বছরের বৃদ্ধের কথায় বিশেষ গুরুত্ব দেয় না। ওই নেতার কথায়, ‘যে কোনও সময়ে উনি যা কিছু বলতে পারেন, আবার পরে অস্বীকারও করতে পারেন।’
গত সপ্তাহেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সাক্ষী মহারাজ মন্তব্য করেছিলেন, এই নির্বাচনে তাঁকে টিকিট না দিলে বিজেপিকে বড় মূল্য চোকাতে হবে। কিন্তু বৃহস্পতিবার সাক্ষী মহারাজের ঘোষণা, উন্নাও নির্বাচনী কেন্দ্র থেকে এবারেও টিকিট পাওয়ার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী তিনি। তবে টিকিট না পেলেও, বিজেপির হয়ে নির্বাচনী প্রচার তিনি চালিয়ে যাবেন।
তাঁর কথায়, সবাই জানে, যতদিন মোদী সরকার থাকবে দেশের উন্নতিও সমানতালে চলবে। আর সেটাই কয়েকজনের চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই  প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরা বা  সপা-বসপার জোটে আস্থা রেখেছেন তারা। কিন্তু কেউই নরেন্দ্র মোদীকে হারাতে পারবে না, আত্মবিশ্বাসের সুর সাক্ষী মহারাজের গলায়। তারপরই বিতর্কিত মন্তব্য করে তিনি বলেন, ২০১৯-এর নির্বাচনে বিজেপি জিতে গেলে, আগামী ৫০ বছর আর তাদের কেউ ছুঁড়ে ফেলতে পারবে না।

You may also like