আমরা জবরদস্তি করে ধর্মঘট করব না, কিন্তু কেউ জোর করে তা ভাঙতে গেলে প্রত্যাঘাত হবে, হুঁশিয়ারি দিলেন সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। বামেদের ডাকা ৮ এবং ৯ জানুয়ারি, দু’দিনের ধর্মঘটের একদিন আগে আলিমুদ্দিন স্ট্রিটে এক সাংবাদিক বৈঠকে একথা বলেন তিনি।
প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই রাজ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার এই ধর্মঘটের বিরুদ্ধে কড়া অবস্থান নিয়েছে। ৮ এবং ৯ ই জানুয়ারি তো বটেই, তার আগে এবং পরে দু’দিন, অর্থাৎ ৭ এবং ১০, টানা চার দিন সরকারি কর্মচারীরা কোনও ছুটি নিতে পারবেন না বলে নির্দেশিকা জারি করেছে নবান্ন। এই চার দিন কোনও সরকারি কর্মচারী অফিসে না গেলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে সরকার। ধর্মঘট ঠেকিয়ে জনজীবন স্বাভাবিক রাখতে রাস্তায় প্রচুর পুলিশ নামানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই অবস্থায় সিপিএম রাজ্য সম্পাদকের ঘোষণায় ধর্মঘটকে কেন্দ্র করে রাজ্যে গণ্ডগোল, ঝামেলার আশঙ্কা থাকছে।
কয়েকদিন আগেই সিপিএম নেতা এবং বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু নিদান দিয়েছিলেন, ধর্মঘটের দু’দিন সাধারণ মানুষ যেন বাস, ট্রেন ধরার জন্য রাস্তায় না বেরোন, কারণ ধর্মঘটে স্তব্ধ হবে যান চলাচল। কেউ জোর করে বাস, ট্রাম, ট্রেন বন্ধ করতে চাইলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে পালটা ঘোষণা করেছে প্রশাসনও। এদিন সূর্যকান্ত মিশ্র বলেন, মানুষের মৌলিক দাবি-দাওয়া নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের নীতির বিরুদ্ধে ধর্মঘট ডাকা হয়েছে। রাজ্য সরকার জোর করে ধর্মঘট ভাঙতে চাইলে স্পষ্ট হয়ে যাবে নীতির প্রশ্ন কে কোন দিকে আছেন।