সাবরীমালা মন্দিরের এক রূপান্তরকামীর প্রবেশকে ঘিরে নতুন করে উত্তাপ ছড়াল সাবরীমালা মন্দির প্রাঙ্গনে। যদিও মহিলাদের মতো রূপান্তরকামীদের মন্দিরে ঢোকার ব্যাপারে তেমন কোনও বিধিনিষেধ ছিল না আগে।
তামিলনাডুর মাদুরাইয়ের বাসিন্দা অজিতা নামে ওই রূপান্তরকামী তাঁর মাকে সঙ্গে নিয়ে মঙ্গলবার সাবরীমালা মন্দির দর্শনে উপস্থিত হন। প্রথমে বিজেপি ও মন্দির কমিটির লোকজন অজিতাদের বাধা দেয় মন্দিরে প্রবেশ করতে। প্রায় আধ ঘন্টা ধরে পম্পা এলাকায় আন্দোলনকারীদের বাধার মুখে পড়েন রূপান্তরকামী অজিতা ও তাঁর মা। পরে পুলিশ গিয়ে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর মন্দিরে প্রবেশের অনুমতি দেয়। প্রথমে বিক্ষোভকারীরা তাঁকে মহিলা মনে করে ঢুকতে দিতে চায়নি, পরে অজিতা নিজের পরিচয় দেওয়ার পরেও বরফ গলেনি। আন্দোলনকারীরা অনড় থাকে তাদের সিদ্ধান্তে। ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করলে, অজিতা আয়প্পা দর্শনের জন্য জন্য পা বাড়ান সাবরীমালার সিঁড়িতে। তবে পুলিশের নির্দেশ মতো তাঁর গায়ের শাল এবং কানের দুল খুলে রাখতে হয় অজিতাকে।
আয়াপ্পা দর্শনের পর অজিতা বলেন, ১৩ বছর বয়স থেকে তিনি সাবরীমালা মন্দিরে যাচ্ছেন। আগে কখনও এমন বাধার মুখে পড়তে হয়নি। মন্দির থেকে বেরিয়ে অজিতা মঙ্গলবারের ঘটনাকে ‘তিক্ত অভিজ্ঞতা’ বলে মন্তব্য করেন। স্বামী আয়াপ্পা রোড থেকে দীর্ঘ পথ তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখায় আন্দোলনকারীরা। গত শুক্রবারও কয়াল নামে আর এক রূপান্তরকামী বিক্ষোভকারীদের বাধার মুখে পড়েছিলেন। যদিও শেষ পর্যন্ত তিনি মন্দিরে প্রবেশ করতে পেরেছিলেন।
এদিনের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ জানিয়েছে, বাধাদানকারীদের চিহ্নিত করে অতি শীঘ্রই আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।

You may also like