ব্যাঙ্ক প্রতারণায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এসবিআই, এলাহাবাদ ব্যাঙ্ক! ২,৫০০ ব্যাঙ্ক প্রতারণার মামলায় জড়িয়ে ৩২ হাজার কোটি টাকা

সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের পিএমসি ব্যাঙ্কের আর্থিক কেলেঙ্কারিতে হাজার হাজার আমানতকারী পথে বসেছেন। যদিও ভারতের পাবলিক সেক্টর ব্যাঙ্কগুলিতে জালিয়াতিতে পঞ্জাব ও মহারাষ্ট্র সমবায় ব্যাঙ্ক (পিএমসি) মাত্র একটি উদাহরণ। দেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক এসবিআই থেকে শুরু করে এলাহাবাদ ব্যাঙ্ক, সবাই জালিয়াতির শিকার। এপ্রিল-জুন ত্রৈমাসিকে ব্যাঙ্কগুলিতে ২,৫০০ টি জালিয়াতির মামলা হয়েছে। এই ব্যাঙ্ক প্রতারণায় জড়িয়ে আছে প্রায় ৩২ হাজার কোটি টাকা।
এই তিন মাসের মধ্যে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ২,৪৮০ টি প্রতারণার মামলা করেছে। তাদের মোট ৩১,৮৯৪.৬৪ কোটি টাকা জালিয়াতি হয়েছে বলে জানিয়েছে এসবিআই। রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে জানিয়েছেন, এপ্রিল-জুন ত্রৈমাসিকে অধিকাংশ ব্যাঙ্ক জালিয়াতির অভিযোগ এসেছে এসবিআই থেকে। মোট ১,১৯৭ টি জালিয়াতির ঘটনায় এসবিআইয়ের প্রায় ১২ হাজার কোটি টাকা গিয়েছে। অন্যদিকে, ওই ত্রৈমাসিকেই এলাহাবাদ ব্যাঙ্কে ৩৮১ টি আর্থিক প্রতারণার ঘটনা ঘটেছে। যার মধ্যে ৮৭ টি মামলায় ব্যাঙ্কের নিজস্ব কর্মচারীদের জড়িত থাকার চাঞ্চল্যকর অভিযোগ রয়েছে। সংশ্লিষ্ট সময়ের মধ্যে সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ায় ১৯৪ টি,পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কে ৯৯ টি এবং ব্যাঙ্ক অফ মহারাষ্ট্রে ৮৫ টি আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে।
এই সব ব্যাঙ্ক প্রতারণার মামলা অর্থনৈতিক পদ্ধতিতে শৃঙ্খলার অভাব ও ক্রেডিট কালচারে শিথিলতার জেরে সম্ভব হয়েছে বলে রাজ্যসভায় এক প্রশ্নের লিখিত জবাবে জানান অনুরাগ ঠাকুর। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানান, আর্থিক ক্ষেত্রে ব্যাপক সংশোধনী ও প্রতিটি স্টেকহোল্ডারের জন্য কড়া নিয়ম বিধির মাধ্যমে এমন আর্থিক জালিয়াতিতে রাশ টানতে উদ্যোগী হয়েছে কেন্দ্র।

Comments
Loading...