সাবরীমালায় মহিলাকে ‘মার’, জেলে গেলেন কেরলের বিজেপি প্রার্থী, বেকায়দায় গেরুয়া শিবির

কেরলে ধাক্কা খেল বিজেপি। কেরলের কোঝিকোড় কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী কে পি প্রকাশবাবুকে ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দিল কেরলের একটি আদালত। সবরীমালা মন্দিরে মহিলাদের প্রবেশাধিকার নিয়ে বিতর্কে এক মহিলাকে মারধরের অভিযোগ রয়েছে কে পি প্রকাশবাবুর বিরুদ্ধে।

ঘটনার সূত্রপাত ২০১৮ সালের ৬ ই নভেম্বর। পরিবারের সঙ্গে পুজো দিতে সবরীমালা মন্দিরে ঢুকছিলেন ললিতা নামে এক মহিলা। কিন্তু তাঁকে দেখে সন্দেহ হয় মন্দিরের আশেপাশে দাঁড়ানো বিক্ষোভকারীদের। ওই মহিলাকে আটকে রেখে তাঁর বয়স জিজ্ঞেস করেন কে পি প্রকাশবাবু। মহিলা নিজের বয়স ৫২ বলে জানান। কিন্তু মহিলার উত্তরে সন্তুষ্ট হননি বিজেপি নেতা কে পি প্রকাশবাবু। তিনি পাল্টা মহিলাকে বলেন, আপনার বয়স ৫০-এর কম। তারপরেই মহিলাকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়া হয় সিঁড়ি থেকে। অভিযোগ, মন্দির চত্বরেই মহিলার উপর চড়াও হন বিক্ষোভকারীরা। এরপরই রাজ্য সরকার কে পি প্রকাশবাবুর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। বৃহস্পতিবার সেই মামলাতেই আত্মসমর্পণ করতে পাথানামতিত্তার পাম্বা থানায় যান কে পি প্রকাশবাবু। সেখানেই তাঁকে গ্রেফতার করে আদালতে পেশ করা হয়। আদালত তাঁর জামিন খারিজ করে দিয়ে ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দেয়। বর্তমানে কোট্টারাক্কারা সাব জেলে বন্দি কোঝিকোড় কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী। শুক্রবার জেলা দায়রা আদালতে ফের নিজের জামিনের আবেদন করবেন বিজেপি প্রার্থী কে পি প্রকাশবাবু।

এতদিন ঋতুমতি মহিলারা সাবরীমালা মন্দিরে ঢুকতে পারতেন না। সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টের রায়ে শেষ হয় সেই রেওয়াজ। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের সর্বাত্মক বিরোধিতায় নামে বিজেপি সহ বিভিন্ন উগ্র হিন্দুত্ববাদী সংগঠন। আগুন জ্বলে কেরলে। স্থানীয় সূত্রে খবর, ৫২ বছরের ললিতা সেদিন পরিবারের সঙ্গে নাতির মুখে ভাত উপলক্ষ্যে পুজো দিতে সাবরীমালা মন্দিরে এসেছিলেন। কিন্তু বিক্ষোভকারীদের জোরজুলুম ও মারধরের মুখে পড়ে মন্দিরে আর ঢুকতে পারেননি তিনি। তারপরই বিষয়টি নিয়ে তৎপর হয় প্রশাসন। পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত কে পি প্রকাশবাবুর বিরুদ্ধে সাবরীমালা মন্দির চত্বরেই বিভিন্ন হিংসাত্মক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে অন্তত ৮ টি মামলা দায়ের আছে। তারমধ্যে একটি মামলাতেই বর্তমানে জেল বন্দি কেরলের বিজেপি প্রার্থী।

Comments
Loading...