ঋণখেলাপী নীরব মোদীর ১০০ কোটি টাকার বাংলা ভাঙা শুরু হল, খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে সিবিআই

ঋণখেলাপী শিল্পপতি এবং হীরে ব্যবসায়ী নীরব মোদীর ১০০ কোটি টাকার বাংলো ভাঙার কাজ শুরু হল মহারাষ্ট্র সরকারের নির্দেশে। মহারাষ্ট্রের আলিবাগের কিহিম বিচে নির্মিত ৩৩ হাজার স্কোয়ার ফিটের সি-ফেসিং বাংলোটির অবৈধভাবে নির্মাণ করা হয়েছিল বলে জানায় রাজ্য প্রশাসন। মুম্বই শহর থেকে ৯০ কিলোমিটার দূরে কিহিম বিচে নীরব মোদীর এই প্রাসাদোপম বাংলোসহ ৫৮ টি বাড়ি ভাঙার নির্দেশিকা দেয় মহারাষ্ট্র প্রশাসন।
প্রসঙ্গত, ওই এলাকায় বলিউডের একাধিক তারকারও বাংলো রয়েছে। এই সমুদ্র সৈকতে নীরব মোদীর বাংলোসহ বেশ কয়েকটি রিসর্ট, হোটেল নিয়ম কানুনের তোয়াক্কা না করেই গড়ে উঠছিল, এই মর্মে ২০০৯ সালে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা জনস্বার্থ মামলা দায়ের করে বম্বে হাইকোর্টে। এরপরেই টনক নড়ে রাজ্য প্রশাসনের। শুক্রবার শুরু হয় নীরব মোদীর আনুমানিক ১০০ কোটি টাকা মূল্যের অট্টালিকা ভাঙার কাজ। এদিকে, বাংলো ভাঙার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছোন সিবিআই আধিকারিকরা। পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কে নীরব মোদীর ঋণখেলাপের দায়ে ওই বাংলোটিতে অভিযান চালান তাঁরা। বাংলোর ভেতরের যাবতীয় জিনিসপত্র বের করে আনার পর শুরু হয় ভাঙার কাজ।
প্রসঙ্গত, ঋণখেলাপী হীরে ব্যবসায়ী নীরব মোদী ও মেহুল চোকসি প্রায় এক বছর আগে দেশ ছেড়ে পালান। সম্প্রতি মেহুল চোকসি ভারতের নাগরিকত্ব ত্যাগ করে অ্যান্টিগুয়া নিবাসী হয়েছেন।

Comments
Loading...