নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ভয়ঙ্কর বিপজ্জনক, তীব্র বিরোধিতায় বাইচুং ভুটিয়া

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় ছাড়পত্র পেয়েছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি)। এই বিল নিয়ে কার্যত আড়াআড়ি বিভক্ত নাগরিক সমাজ। এবার সিটিজেনশিপ অ্যামেন্ডমেন্ট বিলের তীব্র বিরোধিতা করলেন ভারতের সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার বাইচুং ভুটিয়া। সিকিমের মানুষের কথা বিবেচনার বাইরে রেখেই এই ভয়ঙ্কর বিপজ্জনক বিল আনা হচ্ছে, মন্তব্য জাতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক বাইচুংয়ের। জানালেন, সর্বস্ব দিয়ে এই বিলের বিরোধিতা করবে তাঁর হামরো সিকিম পার্টি।
বুধবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সম্মতি পেয়েছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল। বিলে বলা হয়েছে, আফগানিস্তান, পাকিস্তান এবং বাংলাদেশ থেকে আসা হিন্দু, শিখ, জৈন, পার্সি, বৌদ্ধ এবং খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী মানুষ, যাঁরা ধর্মীয় অত্যাচারের শিকার হয়ে এদেশে শরণার্থী হিসেবে রয়েছেন, তাঁদের ভারতের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। বিরোধীদের দাবি, ধর্মের ভিত্তিতে এভাবে নাগরিকত্ব দেওয়া যায় না। সেই সুরে এবার মিলল প্রাক্তন জাতীয় ফুটবল আইকন তথা বর্তমানে পুরোদস্তুর রাজনীতিবিদ বাইচুং ভুটিয়ার স্বরও।
বাইচুং জানিয়েছেন, আমরা বাংলাদেশের খুব কাছে। এবং বাংলা ও অন্যান্য উত্তর পূর্বের রাজ্যে এনিয়ে বিভিন্ন সমস্যা রয়েছে। তাই এই বিল কার্যকর হলে এই রাজ্যগুলোর সঙ্গে সঙ্গেই সমস্যায় পড়বে সিকিমও। বাইচুং আরও বলেন, আমার আশা ছিল সিকিম ক্রান্তিকারী মোর্চা এবং বিজেপির সরকার উত্তর পূর্বের অন্যান্য রাজ্যের দৃষ্টান্ত অনুসরণ করবে এবং সিটিজেনশিপ অ্যামেন্ডমেন্ট বিলের বিরোধিতা করবে। কিন্তু তা হল না। এর ফলে সিকিমের দীর্ঘ মেয়াদী সমস্যা বাড়বে।
বাইচুং জানিয়েছেন, তাঁর হামরো সিকিম পার্টি সিকিম সরকারের উপর চাপ তৈরি করবে। প্রয়োজন হলে তিনি নিজে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক এবং প্রধানমন্ত্রীর দফতরেও চিঠি লিখবেন।
এনআরসি নিয়েও নিজের মত ব্যক্ত করেছেন বাইচুং। তাঁর মতে, এনআরসির বদলে আরও বড় আকারে সিকিম সাবজেক্ট আইডেন্টিফিকেশন করা উচিত। আজকের চ্যালেঞ্জটা শুধু বিদেশিদের জন্য নয় বরং সিকিমে বসবাসকারী বাইরের বাসিন্দাদেরও, বলছেন প্রবাদপ্রতিম এই ফুটবলার।

Comments
Loading...