মুখে কাপড় বেঁধে বেনজির হামলা! রক্তাক্ত জেএনইউ, মাথা ফাটল এসএফআই নেত্রী ঐষী ঘোষের, জখম ১৫, নিন্দা সব মহলে

রক্তাক্ত দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়। রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছটা নাগাদ কিছু দুষ্কৃতী হামলা চালায় জেএনইউ ক্যাম্পাসে। মুখে কাপড় বেঁধে, মুখোশ পরে রড, লাঠি হাতে হামলা চালানো হয়। দুষ্কৃতীদের এই আক্রমণে রক্তাক্ত হয়েছেন বামেদের দখলে থাকা জেএনইউ ছাত্র সংসদের সভানেত্রী ঐষী ঘোষ সহ বহু ছাত্র-ছাত্রী। আক্রান্ত হয়েছেন শিক্ষকরাও।
বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ছবি ও ভিডিওতে দেখা যায়, রীতিমত মাথা ফেটে রক্ত ঝরছে ঐষী এবং অন্যান্য পড়ুয়াদের। বাম ছাত্র সংসদের অভিযোগ, এদিন সন্ধ্যায় একদল বহিরাগত, একদল দুষ্কৃতী যাদের মুখে কাপড় বাঁধা ছিল এবং এবিভিপির কিছু সদস্য একযোগে হামলা চালায় জেএনইউ ক্যাম্পাসে। ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় সবরমতী হস্টেল। আক্রমণ থেকে রেহাই পাননি শিক্ষকরাও। আহত হয়েছেন অধ্যাপক সুচরিতা সেন। ছাত্র-শিক্ষক মিলে ১৫ জনকে গুরুতর আহত অবস্থায় ভর্তি করা হয়েছে দিল্লির এইমস হাসপাতালে। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি যাতে হাতের বাইরে না যায় সে জন্য পুলিশ ডাকা হয়েছে ক্যাম্পাসের ভিতরে।
ভাইরাল হওয়া ভিডিও দেখা দিয়েছে, একদল দুষ্কৃতী তাদের মধ্যে বেশ কিছু মহিলাও ছিল, তারা রীতিমতো মুখে কাপড় বেঁধে বাঁশ, লোহার রড, শাবল নিয়ে হামলা চালায় ক্যাম্পাসের ভেতরে।
যদিও এই হামলার অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে এবিভিপি তরফে। তাদের দাবি, এদিন তারা শান্তিপূর্ণভাবে জেএনইউ-এর বাইরে অবস্থান বিক্ষোভ করছিল। সে সময় ক্যাম্পাসের ভিতরে থেকে কিছু নকশালপন্থী ছাত্র তাদের ওপর হামলা চালায়। জেএনইউ নকশালদের আঁতুড়ঘরে পরিণত হয়েছে বলেও অভিযোগ করেছে এবিভিপি। উল্লেখ্য, সিএএ ও এনআরসি ইস্যুতে এর আগে ব্যপক উত্তেজনা ছড়িয়েছিল দিল্লির জামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে। তারপর থেকেই লাগাতার পথে নেমে প্রতিবাদ করছেন দিল্লির বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। এছাড়াও ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে আন্দোলন চলছিলই জেএনইউতে। তার মাঝেই এই ঘটনা ঘটল।
ঘটনার তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ঘটনার নিন্দা করেছেন তিনি। সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদীর নেতৃত্বে তৃণমূলের এক প্রতিনিধিদল রওনা হয়েছে দিল্লির উদ্দেশে।
ঘটনার প্রতিবাদে রবিবার রাতেই দিল্লির পুলিশ সদর দফতর ঘেরাও করেছে জামিয়া কোঅর্ডিনেশন কমিটি। ঘটনার রেশ আছড়ে পড়েছে কলকাতাতেও। রাত ১০ টা থেকে যাদবপুরে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেছেন যাদবপুরের পড়ুয়ারা। ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার পথে নামছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা।

 

Comments
Loading...