Modi: দিদির পার্টি ‘নির্মমতার পাঠশালা’, সিলেবাস কাটমানি, সিন্ডিকেট, অরাজকতা

বাংলায় কেবল একটাই উইন্ডো, তার নাম ভাইপো উইন্ডো

বাংলায় তৃণমূলের সন্ত্রাসের রাজত্বকে বিদায় জানাবেন জনতা। এবার বাংলায় বিজেপি সরকার। খড়গপুর থেকে হুঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মোদীর। শনিবার খড়গপুরের বিএনআর ময়দানে মোদী বললেন, বাংলায় কেবল একটাই উইন্ডো, তার নাম ভাইপো উইন্ডো। 

খড়গপুর আসন বিজেপির কাছে প্রেস্টিজ ফাইট। এই আসনে এবার প্রার্থী অভিনেতা হিরণ। 

দীর্ঘদিনের কংগ্রেস বিধায়ক জ্ঞানসিংহ সোহনপালকে হারিয়ে ২০১৬ বিধানসভায় জয়ী হয়েছিলেন দিলীপ ঘোষ। কিন্তু ২০১৯ লোকসভায় দিলীপ ঘোষ প্রার্থী হওয়ার পর এই আসনে উপনির্বাচন হয়। লোকসভায় বিপুল ভোটে এগিয়ে থেকেও খড়গপুর বিধানসভা আসনে প্রদীপ সরকারের কাছে হারতে হয় বিজেপিকে। এবার তাই সেই আসন বিজেপির কাছে সম্মানের লড়াই।

ক’দিন আগেই অমিত শাহ এসে রোড শো করে গিয়েছেন, শনিবার এলেন নরেন্দ্র মোদী। এসেই বললেন, বিজেপিই আসল বাংলার দল। শ্যামাপ্রসাদ, আশুতোষ মুখার্জির ডিএনএ বইছে বিজেপির রক্তে, বলেন প্রধানমন্ত্রী। এদিন রাজ্য সভাপতি তথা এই আসনের প্রাক্তন প্রার্থী দিলীপ ঘোষের ভূয়সী প্রশংসা করেন মোদী। বলেন, দিদির দলের হাজার আক্রমণ, হামলা, হুমকি অগ্রাহ্য করে দিলীপ মাটি কামড়ে পরে থেকেছেন। এরকম কর্মী আছে ভেবে আমার গর্ব হয়। 

পাশাপাশি মোদী দাবি করেন, বাংলার মানুষ মমতা ব্যানার্জির অপশাসন থেকে মুক্তি চাইছেন। তাই এবার বাংলায় বিজেপি সরকার তৈরি হবে। গত ১০ বছরে মমতা ব্যানার্জি বাংলাকে বরবাদ করে ছেড়েছেন বলেও অভিযোগ করেন প্রধানমন্ত্রী। 

মমতা সমস্ত কেন্দ্রীয় উন্নয়ন প্রকল্পের বিরোধিতা করছেন বলে ফের দাবি করে নরেন্দ্র মোদী বলেন, বিজেপি ক্ষমতায় এলে ডবল ইঞ্জিন সরকার প্রতিষ্ঠা হলেই আসল পরিবর্তন আরম্ভ হবে। 

শুক্রবার রাতে বেশ কিছুক্ষণের জন্য whatsapp ডাউন হয়ে গিয়েছিল। মোদী খড়গপুরের সভায় দাঁড়িয়ে সেই উদাহরণ টেনে বলেন, মাত্র ৫০-৫৫ মিনিটের জন্য whatsapp ডাউন হয়ে গেছিল। মানুষ ওই সামান্য সময়ের মধ্যেই অধৈর্য হয়ে পড়েছিলেন। নাম না করে মমতাকে আক্রমণ করে মোদী বলেন, বাংলায় তো ৫০-৫৫ বছর ধরে ডাউন হয়ে আছে, কোন উন্নয়ন নেই। মোদীর কথায়, দিদির পার্টি হল নির্মমতার পাঠশালা। সেখানে সিলেবাস কাটমানি, সিন্ডিকেট, অরাজকতা। 

শেষে মোদীর খোঁচা, দিদি বলছেন খেলা হবে আর গোটা বাংলার মানুষ বলছে খেলা শেষ হবে, উন্নয়ন আরম্ভ হবে। 

এদিন খড়গপুর বিএনআর ময়দানে ভিড় হয়েছিল চোখে পড়ার মতো। সেই জনসমাগমের দিকে আঙ্গুল দেখিয়ে মোদীর দাবি, এই জন প্লাবন বলে দিচ্ছে এবার বাংলায় বিজেপি সরকার। 

Comments
Loading...