৬২-৮: মোদী-শাহের নাকের ডগায় বসে কোন ৫ মন্ত্রে ফের দিল্লি দখল কেজরিওয়ালের?

গত পাঁচ বছরে কোন কোন সরকারি নীতির জেরে ফের রাজধানী দিল্লিতে নিরঙ্কুশ ক্ষমতা ধরে রাখল অরবিন্দ কেজরিওয়ালের দল? মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়ালের বিভিন্ন সরকারি প্রকল্প নিয়ে বিরোধীরা কটাক্ষ করলেও কেজরিতেই ফের আস্থা রাখল দিল্লির আমজনতা। কী কী সেই প্রকল্প?
বিদ্যুৎ
গত বিধানসভা ভোটের প্রতিশ্রুতি মতো আপ সরকার ঘোষণা করে, মাসে ৪০০ ইউনিটের কম বিদ্যুৎ ব্যবহার করলে ৫০ শতাংশ ভর্তুকি পাবেন দিল্লিবাসী। পরে তা কার্যকরও হয়। যা দিল্লির মধ্যবিত্ত পরিবারকে বিরাট স্বস্তি দিয়েছিল। শুধু তাই নয়, সম্প্রতি ২০০ ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের কোনও খরচ দিতে হয়নি।
জল
পানীয় জলের সমস্যায় ভুক্তভোগী দিল্লির বাড়ি-বাড়ি বিনামূল্যে জল পৌঁছে দিতে উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ করেন কেজরিওয়াল। তাছাড়া আপ সরকার প্রায় ১৩ লক্ষ দিল্লিবাসীর জলকর মকুব করেছে মাসকয়েক আগে।
বিনামূল্যে জল সরবরাহের জন্য রাজস্ব ক্ষতি হবে বলে বিরোধীরা অভিযোগ তুললেও তা ধোপে টেকেনি। তাছাড়া যে জল বিনামূল্যে দেওয়া হচ্ছে তা পানের অযোগ্য বলেও অভিযোগ করে বিজেপি।
 
মহল্লা ক্লিনিক
দিল্লির প্রত্যেক পাড়ায় তৈরি হয় ‘মহল্লা ক্লিনিক’। এই সরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে সব নাগরিকের জন্য বিনামূল্যে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে আপ সরকার। যা মধ্যবিত্ত ও নিম্ন মধ্যবিত্ত মানুষের পরিষেবা ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য কাজ।
শিক্ষা
সরকারি স্কুলকে বেসরকারি স্কুলের পরিকাঠামো দিতে বদ্ধপরিকর ছিল আপ সরকার। গত পাঁচ বছরে দিল্লির সরকারি স্কুলের পড়ুয়াদের পরীক্ষার ফল বেসরকারি স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের থেকে ভালো বলে সরকারের দাবি। সরকারি স্কুলের খোলনলচে পুরো বদলে দেওয়া হয়। নিখরচায় পড়ুয়াদের জন্য কোচিং এবং প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার আয়োজন করা হয়। গ্যারান্টি ছাড়া পড়াশোনার জন্য ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারে কোনও পড়ুয়া।
মহিলা ও শিশুদের পরিবহণে ছাড়
দিল্লি মেট্রো রেলে মহিলা ও শিশুদের বিনা টিকিটে সফরের কথা ঘোষণা করেন আগে। একইভাবে পরে সরকারি বাসেও মহিলা যাত্রীদের বিনা টিকিটে ভ্রমণের সুবিধা দেয় কেজরিওয়াল সরকার। যাতে দিল্লির মহিলারা সুরক্ষিত থাকেন, পাড়ায় পাড়ায় মার্শাল নিয়োগ হয়।
দিল্লি বিধানসভার ভোট গণনার কাজ চলছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আম আদমি পার্টি ৬২ টি এবং বিজেপি ৮ টি আসনে জয়লাভ করেছে। ভোট শতাংশেও বড়সড় ধস নেমেছে বিজেপির।

Comments
Loading...