ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে গোল করে ফের শিরোনামে অর্জুন টুডু, সেনার অনুমতি না মেলায় লাল-হলুদে খেলতে না পারার আক্ষেপ যায়নি এখনও

অর্জুন টুডু। সেনাবাহিনী থেকে আইএসএলে সুযোগ পাওয়া একমাত্র ফুটবলার। ২০১৪-১৬ কলকাতা লিগে বিপক্ষ দলের কাছে ত্রাস হয়ে উঠেছিলেন সেনার এই ফুটবলার। প্রায় প্রতি ম্যাচেই গোল করছিলেন। বড় দলের সমর্থকদেরও রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছিলেন। ২০১৫ সালে কলকাতা লিগে রানার্স হয়েছিল আর্মি একাদশ। তার পেছনে বড় ভূমিকা ছিল অর্জুন টুডুর। ঝাড়খণ্ডের এই আদিবাসী ফুটবলার তারপরে ইস্টবেঙ্গলের থেকে বড় অংকের প্রস্তাবও পেয়েছিলেন। কিন্তু, সেনা তখন তাঁকে রিলিজ দেয়নি। সেই আক্ষেপ এখনও যায়নি অর্জুনের। বর্তমানে সাদার্ন সমিতিতে আছেন অর্জুন। লিগের ম্যাচে ইস্টবেঙ্গলে বিরুদ্ধে গোল করে আবার প্রচারের আলোয়। কী বলছেন সেনার এই ফুটবলার? ‘আমার আক্ষেপ এখনও যায়নি। ইস্টবেঙ্গল এর মত বড় ক্লাব, আমাকে ডেকেছিল। আমার জন্য ওরা অনেকদিন অপেক্ষা করেছিল। কিন্তু তখন সেনা দলের অন্যান্য প্রতিযোগিতায় খেলা ছিল। তাই আমি আর রিলিজ পাইনি। সেদিন যদি আমি ইস্টবেঙ্গল খেলতে পারতাম, তাহলে আমার ফুটবল জীবনটাই অন্যরকম হত। সারাজীবন আমার এই আক্ষেপ থাকবে’ ফোনের ওপার থেকে বলছিলেন অর্জুন টুডু।
অর্জুনের জন্ম ঝাড়খণ্ডের সারজামডা এলাকার এক দরিদ্র পরিবারে। জামশেদপুর শহর থেকে সারজামদার দূরত্ব ১০ কিলোমিটার। তাঁর বাবা কোনও স্থায়ী কাজ করতেন না। চরম দারিদ্র্যের সঙ্গে লড়তে লড়তে ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন দেখছিলেন অর্জুন। মাত্র ১২ বছর বয়সে বিহারের দানাপুর আর্মি বয়েজ হোস্টেলে চলে যান অর্জুন। সেখানে পড়াশোনার পাশাপাশি চালিয়ে যেতে থাকেন ফুটবল।

২০০৮ সালে সেনাবাহিনীতে চাকরি পান অর্জুন টুডু। পোস্টিং হয় দানাপুর রেজিমেন্টে। ঠিক তার পরের বছর সেনাবাহিনীর ফুটবল দলে সুযোগ পান তিনি। সেদিন থেকে নিয়মিত সেনা ফুটবল দলের সদস্য ঝাড়খণ্ডের এই স্ট্রাইকার। সার্ভিসেসের হয়ে পরপর দু’বছর সন্তোষ ট্রফি জিতেছেন। সন্তোষ ট্রফি এবং কলকাতা লিগের পারফরমেন্স দেখে অর্জুন টুডুকে ভারতের জাতীয় ফুটবল দলের ক্যাম্পে ডেকেছিলেন তৎকালীন জাতীয় দলের কোচ স্টিফেন কনস্ট্যানটাইন। অর্জুনের সঙ্গে সুযোগ পেয়েছিলেন সেনার আরেক ফুটবলার পি জৈন। শেষ কয়েক বছরের মধ্যে সেনা থেকে আর কোনও ফুটবলার জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছিলেন কিনা তা মনে করা যাচ্ছে না।
অর্জুনের নজির এখানেই শেষ নয়। সেনাবাহিনী থেকে এর আগে কয়েকজন ফুটবলার আই লিগে খেলেছেন। কিন্তু অর্জুন টুডুই প্রথম ফুটবলার আইএসএলে সুযোগ পেয়েছিলেন। দিল্লি ডায়নামোস দলে সই করলেও, মাঠে নামার সুযোগ আসেনি।
গত বছর সেনার দল ছেড়েছেন অর্জুন টুডু। তাই এখন আর রিলিজ পেতে অসুবিধা নেই। কলকাতা লিগে তাই সাদার্ন সমিতির হয়ে খেলছেন। ইস্টবেঙ্গল এর বিরুদ্ধে গোল করেছেন। অর্জুন বলছেন, ‘কলকাতা লিগে খেলেই আমি পরিচিতি পেয়েছিলাম। তাই এই প্রতিযোগিতা আমার কাছে আবেগের। আমি অপেক্ষায় আছি, কলকাতার কোনও ক্লাব যদি আই লিগের জন্য আমাকে সই করায়। এখন আর রিলিজ পেতে আমার কোনও অসুবিধা নেই।
এতদিন সেনাদলে খেলতেন বলে অর্জুন টুডুর ট্রানস্ফার হয়নি। এখন যদি সীমান্ত বা অন্য কোন স্পর্শকাতর জায়গায় ডিউটিতে যেতে হয়? অর্জুন বলছেন, আমি তৈরি। এর আগেও জম্মুতে ৩ মাসের জন্য ডিউটি করে এসেছি।

Comments
Loading...