দোলের দিন কেন বিশ্বভারতীতে বসন্তোৎসব নয়, জানতে চান ক্ষুব্ধ শিক্ষামন্ত্রী

বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের। কয়েক দিন আগেই রাতের অন্ধকারে ক্যাম্পাসে ঢুকে হস্টেলে বাম সমর্থক দুই পড়ুয়াকে মারধরের অভিযোগ উঠেছিল এবিভিপি সমর্থকদের বিরুদ্ধে। তারও আগে বাম পড়ুয়ারা এনআরসি নিয়ে বিজেপির রাজ্যসভা সদস্য স্বপন দাশগুপ্তের একটি সভা কার্যত ভন্ডুল করে দেন বিক্ষোভ দেখিয়ে, এমনটাই অভিযোগ। ওই দুই ঘটনার তদন্ত করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি জ্যোতির্ময় ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করেছে।
এরই মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এবার দোলের দিন সেখানে বসন্তোৎসব হবে না। দোলের অনেক আগে ফেব্রুয়ারি মাসের তৃতীয় সপ্তাহে ওই অনুষ্ঠান হবে। গত বছর ওই উৎসবকে ঘিরে বিশ্বভারতীতে ব্যাপক বিশৃঙ্খলা হয়। ওই চত্বর থেকে প্রচুর মদের বোতল উদ্ধার হয়। তার পরিপ্রেক্ষিতেই কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে বেদম চটেছে রাজ্য সরকার। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জি উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীকে সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করতে অনুরোধ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, দোলের দিন বসন্তোৎসব করাটা বিশ্বভারতীর ঐতিহ্য। ওই দিন উৎসব করার ক্ষেত্রে আইনশৃঙ্খলাজনিত সমস্যা হলে কর্তৃপক্ষ রাজ্য সরকারের সঙ্গে কথা বলতে পারে। দরকার হলে কর্তারা মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেও যোগাযোগ করতে পারেন। কিন্তু তাই বলে ওঁরা দিন পরিবর্তনের কথা ভাবছেন কেন? এটা তো ঐতিহ্যের বিরোধী।
বিশ্বভারতীর জনসংযোগ আধিকারিক অনির্বাণ সরকার বলেন, গত বছর বসন্তোৎসবের দিন আড়াই লক্ষ মানুষ এসেছিল। ওই দিন তুমুল বিশৃঙ্খলা হয়। উৎসব শেষ হলে ১৫ ট্রাক্টর ময়লা এবং ৩৫ বস্তা মদের বোতল পরিষ্কার করতে হয়েছিল। সে সময় আমরা স্থানীয় বা জেলা প্রশাসনের কোনও সাহায্য পাইনি। শিক্ষামন্ত্রী কী বলেছেন, আমি জানি না।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমি এ ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলব। আমাদের দেখতে হবে, ওরা কেন এই ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি খুব ভালো থাকা সত্ত্বেও। উপাচার্য নাকি জানিয়েছেন, তাঁরা ওই সময় পর্যাপ্ত পরিমাণ পুলিশ পায় না শান্তি বজায় রাখার জন্য। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রের খবর, তারা উৎসবের সময় পড়ুয়া এবং শিক্ষক ছাড়া বাইরের কাউকে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে না দেওয়ার কথা ভাবছে। এতেও ক্ষুব্ধ শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, এটা কখনও হতে পারে নাকি? বসন্তোৎসব কি শুধু পড়ুয়া আর শিক্ষকদের জন্য? আমি চাই, কর্তৃপক্ষ এই ভাবনা থেকেও সরে আসুক।

Comments
Loading...