তৃণমূলের ১০, বিজেপির ১২! তারকা লড়াইয়ে TMC কে টেক্কা দিল BJP

বিজেপির দুই হেভিওয়েট প্রার্থী তথা সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়, লকেট চ্যাটার্জি এবারের ভোটে লড়ছেন যথাক্রমে টালিগঞ্জ এবং চুঁচুড়া থেকে

আর ঠিক নয় দিন পর শুরু হচ্ছে বাংলার হাইভোল্টেজ নির্বাচন। এবারের ভোট কার্যত তারকাময়। তৃণমূল, বিজেপি যুযুধান দু’পক্ষেই একঝাঁক তারকা প্রার্থী। ভোটের মুখে বাংলা ছবির একঝাঁক তারকা রাজনীতিতে নাম লিখেয়েছেন। শতাব্দী, দেব, মিমি, নুসরৎদের পথ অনুসরণ করে যশ, শ্রাবন্তী, সায়ন্তিকা, বনিরা রাজনৈতিক দলের পতাকা তুলে নিয়েছেন। অনেক অভিনেতা আবার নেতাদের মত শিবির বদলেছেন। তৃণমূলের সমর্থক বলে পরিচিত রুদ্রনীল, বনিরা এখন পদ্ম শিবিরে।  

তৃণমূল একঝাঁক তারকাকে প্রার্থী করেছে। কিন্তু তারকা প্রার্থীর দৌড়ে তৃণমূলকে পিছনে ফেলে দিল বিজেপি। 

ঘাসফুল শিবির ২৯৪টি আসনে প্রার্থী করেছে মোট ১০ জন তারকাকে। বারাকপুরে পরিচালক রাজ চক্রবর্তী, উত্তরপাড়ায় কাঞ্চন মল্লিক, কৃষ্ণনগর উত্তরে কৌশানি মুখার্জি, বাঁকুড়ায় সায়ন্তিকা ব্যানার্জি, আসানসোল দক্ষিণে সায়নী ঘোষ। এছাড়াও প্রার্থী তালিকায় রয়েছেন, অদিতি মুন্সি, লাভলী মৈত্র, জুন মালিয়া। পূর্ব মেদিনীপুরের চণ্ডীপুর থেকে তৃণমূলের হয়ে ভোটে লড়ছেন সোহম চক্রবর্তী। অভিনেতাদের পাশাপাশি তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় রয়েছেন ক্রিকেটার মনোজ তিওয়ারি। হাওড়ার শিবপুর থেকে ঘাসফুল চিহ্নে লড়ছেন তিনি। 

এখনও পর্যন্ত বিজেপির প্রকাশিত তিনটে প্রার্থী তালিকায় দেখা গিয়েছে একাধিক তারকা প্রার্থীর নাম। রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিধানসভা কেন্দ্র থেকে বিজেপির প্রার্থী হয়েছেন অভিনেতা হিরণ। যুব তৃণমূলের সহ সভাপতি হিরণ ভোটের মুখেই ঘাসফুল শিবির ছেড়ে পদ্মফুল শিবিরে নাম লেখান। ইতিমধ্যেই হিরণের হয়ে প্রচার করে গিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এদিকে কলকাতার প্রাক্তন মেয়ের শোভন চ্যাটার্জির গড় বলে পরিচিত বেহালা পূর্বে বিজেপি প্রার্থী অভিনেতা পায়েল সরকার। ঠিক পাশের কেন্দ্র বেহালা পশ্চিমে বিজেপি প্রার্থী অভিনেতা শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি। শ্রাবন্তীর বিপরীতে রয়েছেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জি। হুগলির চণ্ডীতলা কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী করেছে যশ দাসগুপ্তকে। এবারের ভোটে হুগলির চণ্ডীতলা একটি অন্যতম আকর্ষণীয় কেন্দ্র। এখান থেকে লড়ছেন সিপিএমের মহম্মদ সেলিম। চণ্ডীতলায় তৃণমূলের প্রার্থী স্বাতী খোন্দেকার। 

[আরও পড়ুন- ভোটমুখী চার রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রীদের মধ্যে সবচেয়ে কম টাকা-সম্পত্তি মমতার, জানেন কোন মুখ্যমন্ত্রীর কত সম্পদ?]

বিজেপির প্রার্থী তালিকায় রয়েছেন বাংলা সিরিয়ালের পরিচিত মুখ অঞ্জনা বসু। বরাহনগর কেন্দ্র থেকে পদ্ম ফুল চিহ্নে ভোট লড়বেন অভিনেতা পার্নো মিত্র। কয়েকদিন বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন অভিনেতা পাপিয়া অধিকারী। বিজেপির প্রার্থী তালিকায় তাঁরও নাম রয়েছে। রাজীব ব্যানার্জির সঙ্গে দিল্লি গিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন রুদ্রনীল ঘোষ। হাওড়ার শিবপুর কেন্দ্র থেকে রুদ্রনীলের ভোটে লড়া একপ্রকার স্থির ছিল। তবে শেষ মুহূর্তে দেখা যায় তাঁকে বিজেপি প্রার্থী করেছেন হাই প্রোফাইল ভবানীপুর কেন্দ্র থেকে।  কয়েকদিন আগেই বিজেপি যোগ দিয়েছেন আরেক অভিনেতা তনুশ্রী চক্রবর্তী। শ্যামনগর থেকে একুশের হাই ভোল্টেজ নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী তিনি। অভিনেতা না হলেও গ্ল্যামার জগতের পরিচিত নাম রাজ্য বিজেপির মহিলা মোর্চার সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল। এবারের ভোটে তৃণমূলের প্রার্থী জনপ্রিয় অভিনেতা সায়নী ঘোষের বিরুদ্ধে আসনসোল দক্ষিণ কেন্দ্র থেকে ভোটে লড়বেন তিনি। এছাড়াও বিজেপির দুই হেভিওয়েট প্রার্থী তথা সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়, লকেট চ্যাটার্জি এবারের ভোটে লড়ছেন যথাক্রমে টালিগঞ্জ এবং চুঁচুড়া থেকে।

তারকা প্রার্থীর তালিকায় বিজেপি এখন তৃণমূলের থেকে এগিয়ে। যদিও বিজেপির এখনও সম্পূর্ণ প্রার্থী তালিকা প্রকাশিত হয়নি।  বিজেপির তারকা সদস্যদের মধ্যে সবথেকে আলোচিত নামটি মিঠুন চক্রবর্তী। মহাগুরু কোথা থেকে প্রার্থী হন তা নিয়ে জল্পনা চলছে। মিঠুন শুধুমাত্র বিজেপির স্টার ক্যাম্পেনার হয়েই থাকবেন নাকি বাকি আসন গুলির মধ্যে একটিতে তাঁকে প্রার্থী করে ভোটের মুখে বিজেপি কোনও বড় চমক দেবে কিনা এখন সেটাই দেখার।

Comments
Loading...