শোভনের বেহালা পূর্বে স্ত্রী রত্না, বিজেপি কাকে প্রার্থী করবে?

রত্না শুরু থেকে দলের কাজ করলেও, শোভনের দলত্যাগের পর সামনের সারিতে চলে আসেন

কলকাতার প্রাক্তন মেয়র তথা তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়া শোভন চ্যাটার্জির নির্বাচনী ক্ষেত্র বেহালা পূর্বে প্রার্থী হচ্ছেন তাঁর স্ত্রী রত্না চ্যাটার্জি।

জল্পনা ছিলই, শুক্রবার মমতা ব্যানার্জির ঘোষণায় সেই জল্পনায় শিলমোহর পড়ল। মমতার অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত শোভন চ্যাটার্জির সঙ্গে বান্ধবী বৈশাখী ব্যানার্জিকে নিয়ে একটা সময়ে দলের দূরত্ব বাড়তে থাকে। শোভন চ্যাটার্জি তৃণমূল ছাড়লে, তাঁর ওয়ার্ডের দায়িত্ব দেওয়া হয় রত্না চ্যাটার্জিকে। রত্না শুরু থেকে দলের কাজ করলেও, শোভনের দলত্যাগের পর সামনের সারিতে চলে আসেন। শোভনের সঙ্গে অশান্তির সময় রত্নাকে একবার ডেকেও কথা বলেন মমতা।

একুশের বিধানসভা ভোট বাংলার বাকি নির্বাচনগুলির থেকে অনেক ক্ষেত্রেই আলাদা। এবারে নিজের কেন্দ্র ছেড়ে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী নন্দীগ্রাম থেকেই প্রার্থী হচ্ছেন মমতা ব্যানার্জি। তৃণমূল নেতৃত্ব শুরু থেকেই বলেছিলেন এবারে প্রার্থী তালিকায় একাধিক চমক থাকবে। থাকবে বেশ কিছু নতুন মুখ। শোভনের গড় বলে পরিচিত বেহালা পূর্বে তাঁরই স্ত্রী রত্নাকে ভোট যুদ্ধে নামানো সেই চমকের একটি অংশ বলে অনেকে মনে করছেন।

[আরও পড়ুন- তৃণমূল প্রার্থী হলেন দলিত সাহিত্যিক মনোরঞ্জন ব্যাপারী]

শোভনের তৃণমূল ত্যাগের পর থেকেই বেহালা পূর্বের কেন্দ্রের দিকে নজর ছিল রাজ্যবাসীর। বেহালা পূর্বে তাঁকে প্রার্থী করা হলে তিনি লড়তে রাজি বলেও জানিয়েছিলেন রত্না চ্যাটার্জি।
এদিকে, দেরিতে হলেও বিজেপির দলীয় কর্মসূচিতে রাস্তায় নেমেছেন শোভন চ্যাটার্জি, বৈশাখী ব্যানার্জি। এখন দেখার বিষয়, রত্নার বিরুদ্ধে গেরুয়া শিবির শোভনকে প্রার্থী করে কিনা।

Comments
Loading...