কাকলি ঘোষ দস্তিদারকে আইনি নোটিস দিলীপ ঘোষের

‘মিথ্যে’ ট্যুইটের অভিযোগে তৃণমূল সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদারকে আইনি নোটিস পাঠালেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। নোটিসে বলা হয়েছে, আগামী তিনদিনের মধ্যে নিঃশর্ত ক্ষমা না চাইলে তৃণমূল সাংসদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ঘটনার সূত্রপাত গত ৭ নভেম্বর। দিলীপ ঘোষের মন্তব্য উদ্ধৃত করে কাকলি ঘোষ দস্তিদারের ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে লেখা হয়, “নাগরিকত্ব নিয়ে মতুয়ারা যদি বেশি কথা বলে তবে মতুয়াদের ভোট আমাদের চাই না। মতুয়ারা নাগরিকত্ব নিয়ে বিজেপিকে ব্ল্যাকমেল করছে, মতুয়া ভোট আমাদের চাই না।” যদিও সেদিনই সাংবাদিক বৈঠক করে সংশ্লিষ্ট ট্যুইটের তীব্র বিরোধিতা করেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর দাবি, কাকলি ঘোষ দস্তিদারের ট্যুইটে উল্লেখিত মন্তব্য তাঁর নয়। কাকলি ঘোষ দস্তিদারের মতো একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব কীভাবে ‘মিথ্যে’ কথা ট্যুইটারে লিখলেন, সে প্রশ্নও তোলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। তিনি জানিয়েছিলেন, তাঁর নামে ভুল ট্যুইট করে সাইবার ক্রাইম করেছেন তৃণমূল সাংসদ। পাশাপাশি কাকলি দেবী নিজেই ওই সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট চালান নাকি প্রশান্ত কিশোরের আইপ্যাক সংস্থার লোক চালান, তা নিয়ে কটাক্ষ করেন দিলীপ ঘোষ।

সেই ট্যুইট ইস্যুতেই সোমবার তিনি আইনি নোটিস পাঠালেন কাকলি ঘোষ দস্তিদারকে। তাতে আগামী ৩ দিনের মধ্যে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার কথা বলা হয়েছে। নইলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও উল্লেখ করেছেন দিলীপ ঘোষের আইনজীবী। এদিকে কাকলি ঘোষ দস্তিদারের ওই ট্যুইটটি ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে। এবং এই প্রসঙ্গে তাঁর কোনও প্রতিক্রিয়াও পাওয়া যায়নি।

Comments
Loading...