মোদীর রাজ্যে বাম ছাত্র জোটের জয়জয়কার, গুজরাত সেন্ট্রাল ইউনিভার্সিটিতে এবিভিপিকে পর্যুদস্ত করে জয় বাম-দলিত জোটের

মোদীর রাজ্যে বিজেপির জন্য অশুভ সংকেত? গুজরাত সেন্ট্রাল ইউনিভার্সিটির (Gujarat Central University) ছাত্র সংসদের ভোটে পাঁচটি আসনের সব’কটিতেই হারল এবিভিপি। বাম ছাত্র সংগঠনগুলির জোট পেয়েছে তিনটি আসন এবং একটি করে আসন দখল করেছে এনএসইউআই ও নির্দল প্রার্থী।
গত শুক্রবার গুজরাত সেন্ট্রাল ইউনিভার্সিটিতে (Gujarat Central University) ছাত্র ভোট হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১ টি বিভাগের মধ্যে পাঁচটিতে এই ভোটগ্রহণ হয়। স্কুল অফ ল্যাঙ্গুয়েজেস, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, লাইব্রেরি সায়েন্স, পরিবেশ বিজ্ঞান ও সোশ্যাল সায়েন্স বিভাগের এই ভোটে পাঁচটিতেই পর্যুদস্ত হয়েছে বিজেপির ছাত্র সংগঠন অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ (এবিভিপি)। বিরসা আম্বেদকর ফুলে ছাত্র সংগঠন (বিএপিএসএ), স্টুডেন্টস ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া (এসএফআই) এবং লেফট ডেমোক্র্যাটিক স্টুডেন্টস ফেডারেশন (এলডিএসএফ) একটি করে আসন ছিনিয়ে নিয়েছে।
সোশ্যাল সায়েন্স বিভাগে ১৬৭ টি ভোটের মধ্যে বাম সমর্থিত বিএপিএসএ-এর প্রার্থী আশরফ পেয়েছেন ১১৪ টি ভোট। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী এবিভিপি-র প্রাচী রাভাল পেয়েছেন মাত্র ৪৫ টি ভোট। আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগে ৩৮ টি ভোটের মধ্যে এলডিএসএফ প্রার্থী প্রাচী লোখান্ডে পান ৩০ টি ভোট। বাদবাকি আটটি ভোট যায় এবিভিপি-র রমা জাজুলার খাতায়। স্কুল অফ ল্যাঙ্গুয়েজস বিভাগে ১৬৬ ভোটের মধ্যে ৯৪ টি ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন এসএফআই প্রার্থী চিত্তরঞ্জন। এছাড়া পরিবেশ বিজ্ঞান ও  লাইব্রেরি সায়েন্স বিভাগ থেকে জয়ী হয়েছেন নির্দল প্রার্থী তরুণ কুমার আহিরওয়ার ও এনএসইউআই প্রার্থী বিজেন্দ্র কুমার।
গুজরাত সেন্ট্রাল ইউনিভার্সিটিতে (Gujarat Central University) গত তিন বছর ধরে বিএপিএসএ তিনটি করে আসন জিতলেও, এই প্রথমবার সেখানে প্রার্থী দিয়েছিল এসএফআই ও এলডিএসএফ। আর প্রথম বারেই বাজিমাত করেছে দুই বাম ছাত্র সংগঠন।
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রাজ্যে এই অভাবনীয় জয়ে স্বভাবতই উচ্ছ্বসিত ও আত্মবিশ্বাসী বামেরা। অন্যদিকে পাঁচটি আসনেই ভরাডুবি হওয়া এবিভিপি- র অভিযোগ, বামেদের জেতাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে নিয়ম ভঙ্গ করা হয়। একটি বিবৃতিতে এবিভিপি-র অভিযোগ, ২২ জানুয়ারি ভোটের দিন সমস্ত ক্লাস বন্ধ থাকার কথা। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবরেটরি থেকে ক্লাস, সবই চালু ছিল সেদিন। এভাবে পড়ুয়াদের আটকে রাখা হয়, যাতে তারা ভোটদান করতে না পারে। যদিও এই সমস্ত অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে বামেরা। জেএনইউ ছাত্র সংসদের  সভানেত্রী, এসএফআই-র ঐশী ঘোষ সোশ্যাল মিডিয়ায় লেখেন, গুজরাত সেন্ট্রাল ইউনিভার্সিটি থেকে আসা খবরে আমরা অনুপ্রাণিত হচ্ছি।

Comments
Loading...