আইআইএম, এনআইটিতে ক্যাম্পাসিংয়ে চাকরি দেওয়ার ক্ষেত্রে এগিয়ে অ্যামাজন, ফ্লিপকার্ট

আইআইএম কিংবা এনআইটির মত ভারতের সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে এতদিন দাপট ছিল সফটওয়্যার বা ব্যাঙ্কিং ক্ষেত্রের। বিদেশি বহুজাতিক ব্যাঙ্ক বা তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার তরফে এক ঝাঁক ফ্রেশারকে মোটা বেতনের চাকরি দেওয়াই এতদিন ছিল দস্তুর। কিন্তু ইদানীং বদল আসছে সেই ট্রেন্ডে। ইকনমিক টাইমসে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন বলছে, দেশের সেরা বি স্কুল, প্রযুক্তি ও ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ থেকে বিপুল পরিমাণে চাকরি হচ্ছে অ্যামাজন এবং ফ্লিপকার্টে। ন্যাশনাল ইন্সস্টিটিউট অফ টেকনোলজিতে (এনআইটি) অ্যামাজনের পাল্লা ভারি। অন্যদিকে ইন্ডিয়ান ইন্সস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্টেও (আইআইএম) প্রথম সারিতে রয়েছে অ্যামাজন। সামান্য পিছিয়ে ফ্লিপকার্ট।

এপ্রসঙ্গে আইআইএম আহমেদাবাদের প্লেসমেন্ট কমিটির চেয়ারপার্সন অমিত কারনা বলছেন, বিশ্বে ই-কমার্সের চাহিদা যেভাবে বাড়ছে, তাতে ভবিষ্যতে সংস্থাগুলোর আরও প্রচুর কর্মী প্রয়োজন হবে। স্বভাবতই দেশের ক্ষেত্রে তাদের প্রথম পছন্দ হবে আইআইএম।

বি স্কুলগুলো থেকে প্রচুর পড়ুয়াকে চাকরি দেওয়ার কথা স্বীকার করে নিয়েছে অধুনা ওয়ালমার্টের ফ্লিপকার্ট। দেশের সেরা ২২ টি বিজনেস স্কুল থেকে ক্যাম্পাস ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে কর্মী নেওয়া তাদের কাছে যথেষ্ট লাভজনক বলেই মনে করছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা। প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, অ্যামাজনের সঙ্গে এই সম্পর্কে জানার জন্য যোগাযোগ করা হলে, তাদের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

বিগত কয়েক বছরে দেশের এনআইটিগুলোতে অ্যামাজনই সবচেয়ে বেশি পড়ুয়াকে চাকরি দিয়েছে। পে প্যাকেজও নজরকাড়া। সূত্রের খবর, এনআইটিতে অ্যামাজন স্নাতক স্তরের পড়ুয়াদের বছরে ২৮.৭৫ লক্ষ টাকার গড় প্যাকেজ দিয়েছে। একইভাবে স্নাতকোত্তর স্তরে অ্যামাজন দিয়েছে বছরে ২৯.৫ লক্ষ টাকা। মূলত সফটওয়্যার ডেভলপমেন্ট ইঞ্জিনিয়ার পদে এনআইটি থেকে ক্যাম্পাসিং করছে অ্যামাজন। তবে আরও বিভিন্ন পদের জন্যও এই প্রযুক্তি শিক্ষাকেন্দ্র থেকে পড়ুয়াদের নেওয়ার নজির রয়েছে বলেই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

মূলত জলন্ধর, ত্রিচি, কালিকট, মালব্য, জয়পুর এনআইটিতে ক্যাম্পাস ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে কর্মী নিয়েছে অ্যামাজন। ত্রিচি এনআইটিতে মাইক্রোসফট, জেনারেল ইলেক্ট্রিককে সরিয়ে এক নম্বর রিক্রুটার হয়ে উঠেছে অ্যামাজন। একইভাবে আইআইএমগুলোতেও একচেটিয়া ক্যাম্পাসিং করছে অ্যামাজন। সামান্য পিছিয়ে থাকলেও, ক্রমেই শক্তি বাড়িয়ে অ্যামাজনকে কড়া প্রতিযোগিতায় ফেলতে চলেছে ফ্লিপকার্টও।

ফলে ই-কমার্সের রমরমা যত বাড়ছে, ততই চাকরি দেওয়ার ক্ষেত্রে বাকিদের ছাপিয়ে যাচ্ছে অ্যামাজন, ফ্লিপকার্ট।

Comments
Loading...