রঞ্জন গগৈয়ের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার ঘটনায় তদন্ত কমিটিতে অবসরপ্রাপ্ত মহিলা বিচারপতি রাখা হোকঃ বিচারপতি চন্দ্রচূড়

সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থা মামলায় বহিরাগত সদস্য হিসেবে এক অবসরপ্রাপ্ত মহিলা বিচারপতিকে রাখার আর্জি জানিয়ে বিচারপতি বোবদেকে চিঠি দিলেন বিচারপতি চন্দ্রচূড়।
প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার মামলা চলছে বিচারপতি এস এ বোবদের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের অভ্যন্তরীন কমিটিতে। সূত্রের খবর, বিচারপতি এস এ বোবদেকে লেখা একটি চিঠিতে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় সংশ্লিষ্ট মামলায় একজন অবসরপ্রাপ্ত মহিলা বিচারপতিকে বহিরাগত সদস্য হিসেবে রাখার আর্জি জানান। সেই সঙ্গে অভিযোগকারিণীর পছন্দমতো আইনজীবীকে নিয়োগ করার কথাও বলা হয়েছে ওই চিঠিতে।
সূত্রের খবর, গত ২ রা মে বিচারপতি বোবদের সঙ্গে বিশদ আলোচনা করেন বিচারপতি চন্দ্রচূড়। তিনি সুপ্রিম কোর্টের তিন অবসরপ্রাপ্ত মহিলা বিচারপতির নামও সুপারিশ করেন। অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি রুমা পাল, সুজাতা মনোহর ও রঞ্জনা প্রসাদ দেশাইয়ের অরাজনৈতিক অবস্থানের জন্য তাঁদের মধ্যে কাউকে সংশ্লিষ্ট মামলায় সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করার আবেদন জানানো হয়েছে চিঠিতে। সূত্রের খবর, বিচারপতি চন্দ্রচূড়ের চিঠিতে তাঁর নিজস্ব মতামত জানাননি, প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার মামলায় সুপ্রিম কোর্টের ১৭ জন বিচারপতির সঙ্গে মৌখিক আলোচনার পরে এই চিঠি দেওয়া হয়।
উল্লেখ্য, প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈর বিরুদ্ধে যে মহিলা যৌন হেনস্থার অভিযোগ করেছেন, তিনি একাধিকবার মামলায় নিরপেক্ষহীনতার অভিযোগ তুলেছেন। এমনকী শুনানিতে তাঁর অনুপস্থিতির কারণ হিসেবে বিচার বিভাগীয় প্যানেলের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে বিচারপতি বোবদে লিখিত অভিযোগ করেন অভিযোগকারিনী।

Comments
Loading...