সিপিআই (মাওয়িস্ট) এর প্রাক্তন রাজ্য সম্পাদক সুদীপ চোঙদারের জীবনাবসান

সিপিআই (মাওয়িস্ট) এর প্রাক্তন রাজ্য সম্পাদক সুদীপ চোঙদার ওরফে কাঞ্চনের জীবনাবসান। শুক্রবার দুপুরে টালিগঞ্জের বাঙুর হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। গত ৪ ই ফেব্রুয়ারি আলিপুর সেন্ট্রাল জেলে স্ট্রোক হয় সুদীপ চোঙদারের। কার্যত বিনা চিকিৎসায় দীর্ঘক্ষণ জেলে পড়ে থাকার পর তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়, কিন্তু সেখানেও গত কয়েকদিনে তাঁর ঠিক মতো চিকিৎসা হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন তাঁর পরিবারের লোকজন।
গত ২০১০ সালে কলকাতা পুলিশ সুদীপ চোঙদারকে গ্রেফতার করেছিল। তারপর থেকে তিনি জেলেই ছিলেন। তাঁর পরিবারের লোকজন অভিযোগ করেছেন, বহু দিন ধরেই হৃদরোগে ভুগছিলেন তিনি। কিন্তু জেলে ঠিক মতো চিকিৎসার ব্যবস্থা করেনি সরকার। এমনকী রক্তচাপের যে ওষুধ তিনি জেলে খেতেন, তাও ৭-৮ দিন আগে শেষ হয়ে গিয়েছিল। ৩ রা ফেব্রুয়ারি রাতে খেয়ে তিনি শুয়ে পড়েন। মাঝরাত বা তার পরে তাঁর স্ট্রোক হয়, কিন্তু ভোর পর্যন্ত তা কেউ জানতে পারেননি। সকালে তাঁকে সেলে পড়ে থাকতে দেখে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, কিন্তু সুদীপ চোঙদারের শ্বাসকষ্টের সমস্যার চিকিৎসা শুরু হয়। তাঁর হৃদরোগের যথাযথ চিকিৎসা করা হয়নি। রাজনৈতিক বন্দিদের অধিকার রক্ষা কমিটির উদ্যোগে দু’তিন পর হাসপাতালে তাঁর কিছুটা চিকিৎসা শুরু হয়।
সুদীপ চোঙদারের মৃত্যুতে শনিবার রাজ্যের বিভিন্ন জেলে রাজনৈতিক বন্দিরা দুটি দাবি সামনে রেখে ২৪ ঘন্টা অনশন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সুদীপ চোঙদারের মৃত্যুর বিচারবিভাগীয় তদন্তের দাবি তুলেছেন রাজনৈতিক বন্দিরা। পাশাপাশি, জেলে চিকিৎসা পরিকাঠামো তৈরিরও দাবি জানানো হয়েছে তাঁদের পক্ষ থেকে।

Comments
Loading...