করোনা টিকা বণ্টনের দায়িত্ব হাতে চায় রাজ্য, কেন্দ্র বললেই ব্যবস্থা করে নেব, বাঁকুড়া থেকে বললেন মুখ্যমন্ত্রী

রাত পোহালেই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে টিকা বৈঠকে বসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। টিকা ব্যবস্থাপনা নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হবে বলে জানা যাচ্ছে। এই প্রেক্ষিতে করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে কেন্দ্রের উপর চাপ বৃদ্ধি করলেন মমতা। বাঁকুড়ায় সরকারি সুবিধা প্রদানের অনুষ্ঠান থেকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কেন্দ্র আমাদের বিনা পয়সায় করোনা চিকিৎসা পর্যন্ত করতে দেবে না। ইঞ্জেকশান নিয়ে বলবে এখন দেবো আর আসতে আসতে ৬ মাস ৮ মাস হয়ে যাবে… আমরা যদি লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করে কোভিডের চিকিৎসা করতে পারি, তাহলে ইঞ্জেকশানও আমরা করতে পারি। মমতার কথায়, শুধু নির্দেশটা দাও আর বলো কার কাছ থেকে নেব। রাজ্য সরকার তৈরি আছে। 

নয়া কৃষি আইন নিয়েও নিজের অসন্তোষ উগরে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর অভিযোগ কেন্দ্রীয় নীতির কারণেই দাম বাড়ছে সবকিছুর। কেন্দ্রকে আক্রমণ করে বলেন, খেতে খেতে দানব-দৈত্য তৈরি হয়েছে। সব চাই চাই করতে করতে মানুষের জন্য আর কিছু নেই। আগামী দিনে খাদ্য পণ্যের দাম আকাশ ছোঁবে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন মমতা ব্যানার্জি। বলেন চাষি, দলিত, আদিবাসী, সংখ্যালঘু সবার থেকে সবকিছু কেড়ে নেবে আর ক্ষমতায় এসে বলবে এনআরসি করব, বের করো তোমার ঠাকুমার কাগজ। 

মমতা এদিন কেন্দ্রীয় এজেন্সি নিয়ে কটাক্ষ করেন। বলেন, আমার অফিসারদের চমকাবে আর বাইরে গিয়ে বাংলার বদনাম করবে। আমি তা করতে দেবো না। 

Comments
Loading...