বসনিয়ায় গ্রেফতার শিল্পপতি লক্ষ্মী মিত্তলের ভাই প্রমোদ মিত্তল, ধৃত তাঁর সংস্থার আরও ২ বাঙালি আধিকারিক

প্রতারণা, ক্ষমতার অপব্যবহার ও সংগঠিত অপরাধমূলক কাজে যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার হলেন শিল্পপতি প্রমোদ মিত্তল। ভারতের ধনীতম শিল্পপতিদের মধ্যে অন্যতম লক্ষ্মী মিত্তলের ভাই প্রমোদ মিত্তলকে বুধবার বসনিয়ায় গ্রেফতার করে সে দেশের পুলিশ। অপরাধ প্রমাণিত হলে ৪৫ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে প্রমোদ মিত্তলের।
২০০৩ থেকে প্রমোদ মিত্তলের সহযোগিতায় বসনিয়ার লুকাভাকের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের একটি শহরে একটি কোকিং প্ল্যান্ট প্রতিষ্ঠা হয়। GIKIL নামে ওই কোকিং প্ল্যান্ট তৈরির পরিদর্শনকারী বোর্ডের সভাপতি ছিলেন প্রমোদ মিত্তল। তাঁর গ্লোবাল স্টিল হোল্ডিংস ও আরও কয়েকটি সংস্থার সহযোগিতায় ওই কোকিং প্ল্যান্ট গড়ে ওঠে। প্রায় এক হাজার কর্মী কর্মরত রয়েছেন ওই কোকিং প্ল্যান্টে। সেখান থেকে বিশাল অঙ্কের অর্থ প্রতারণা করা ও ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ ওঠে প্রমোদ মিত্তল সহ বেশ কয়েকজন উচ্চপদস্থ আধিকারিকের বিরুদ্ধে। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে বুধবার প্রমোদ মিত্তল সহ সংস্থার জেনারেল ম্যানেজার পরমেশ ভট্টাচার্য ও সুপারভাইজারি বোর্ডের অন্যতম সদস্য রাজীব দাশকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে খবর।
মোট ৪ জনের বিরুদ্ধে সংগঠিত অপরাধ, আর্থিক দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপপ্রয়োগের অভিযোগে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছিল। তাঁর মধ্যে অন্যতম হলেন প্রমোদ মিত্তল। ধৃতদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ সাজা হিসাবে ৪৫ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে বলে খবর।

Comments
Loading...