গত শুক্রবার দুপুরে হাতিবাগান রোড এলাকায় এক ব্যক্তির কাছ থেকে কয়েক লক্ষ টাকা বোঝাই ব্যাগ ছিনতাই করে চম্পট দিয়েছিল তিন দুষ্কৃতী, চার দিনের মধ্যে ঘটনার সাথে জড়িত দুষ্কৃতীদের ধরতে সফল হল কলকাতা পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ৫ অক্টোবর শুক্রবার দুপুরে সোমেন দে নামে হাতিবাগানের এক মোবাইল দোকানের কর্মচারী একটি ব্যাগে করে ৩ লক্ষ ৯৭ হাজার টাকা নিয়ে পাশের একটি রাষ্ট্রয়াত্ত ব্যাঙ্কের শাখায় জমা করতে যাচ্ছিলেন। সোমেনের কর্মস্থল থেকে ওই ব্যাঙ্কের শাখার দূরত্ব মাত্র ১০০ মিটার। কিন্তু তাঁর মধ্যেই দিনের আলোয় তাঁর পিছু ধাওয়া করে দুষ্কৃতীরা। জানা গেছে, ওই দুপুর ৩ টে ১৫ নাগাদ এক দুষ্কৃতী তাঁর মুখে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে টাকা ভর্তি ব্যাগ নিয়ে চম্পট দেয়। ওই দুষ্কৃতীর সাথে তার এক সঙ্গীও ওই ছিনতাইয়ের সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল। পুলিশে দায়ের করা সোমেনের অভিযোগের বয়ান অনুযায়ী, এরপর ওই দুই দুষ্কৃতী কিছুটা দৌড়ে অপর একজনের বাইকে চেপে এলাকা থেকে পালায়।
এই অভিযোগের পর ঘটনার তদন্ত শুরু করে পুলিশ। খতিয়ে দেখা হয় এলাকার সিসি টিভি ফুটেজ। যে বাইকে চড়ে দুষ্কৃতীরা চম্পট দিয়েছিল তার নম্বর পাওয়া যায়। সেই সূত্র ধরে রবিবার, ৭ ই অক্টোবর কলকাতা ও বারুইপুরে অভিযান চালিয়ে মহম্মদ শাহজাহান সিকান্দার (৩৮) ও নুর আলম শেখ (২৭) নামে দুই দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করা হয়।

নুরুলই সোমেনকে আঘাত করে টাকার ব্যাগ ছিনতাই করেছিল। এই দুই অভিযুক্তকে ইতিমধ্যেই আদালত ২২ অক্টোবর পর্যন্ত পুলিশি হেফজতের নির্দেশ দিয়েছে।

সোমবার ঘটনায় অন্য অভিযুক্ত আব্দুল মান্নানকে (৩৬) নদিয়ার তেহট্ট থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত তিন জনের থেকে এখনও পর্যন্ত ২ লক্ষ ১০ হাজার টাকা উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

You may also like