ফের কলকাতায় নোবেল, অর্থনীতিতে নোবেল পেলেন অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়

২০১৯ সালে অর্থনীতিতে নোবেল পাচ্ছেন অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়। অমর্ত্য সেনের পর ফের এক বাঙালি এই পুরস্কার পাচ্ছেন। এবার অর্থনীতিতে অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়াও এস্থার ডুফলো এবং মাইকেল ক্রেমার নোবেল পাচ্ছেন।

১৯৯৮ সালে অমর্ত্য সেন অর্থনীতিতে নোবেল পেয়েছিলেন। ২১ বছর পর ফের এক বাঙালির হাতে উঠতে চলেছে নোবেল।

১৯৬১ সালে কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়। বাবা-মা দীপক ও নির্মলা বন্দ্যোপাধ্যায়, দু’জনেই অর্থনীতির অধ্যাপক ছিলেন। সাউথ পয়েন্ট স্কুলে পড়াশোনা শুরু তারপর প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে স্নাতক হন অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়। দিল্লির জেএনইউ থেকে এমএ পাশ করেন তিনি। বর্তমানে ফোর্ড ফাউন্ডেশন ইন্টারন্যাশনালের অর্থনীতির অধ্যাপক হিসেবে কাজ করছেন অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০০৯ সালে তিনি পেয়েছেন ইনফোসিস পুরস্কার।

এবছর অর্থনীতিতে আরেক নোবেল প্রাপক এস্থার ডুফলোর সঙ্গে যুগ্মভাবে পুওর ইকনমিক্স বই লেখেন অভিজিৎ, যা বিপুল সাড়া ফেলে গোটা দুনিয়ায়। কারণ, গরিব মানুষের জীবনযাত্রার সঙ্গে তাঁর আচরণের কী প্রত্যক্ষ সম্পর্ক, তা নিপুণভাবে এই বাঙালি অর্থনীতিবিদ তুলে ধরেছিলেন এই বইয়ে। গরিব সাধারণ মানুষের দাবি দাওয়ার পক্ষে লাগাতার সওয়াল করা অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায় বর্তমান উদার অর্থনীতির যুগে এক বিকল্প চিন্তা হিসেবেই স্থান পেয়েছে অর্থনীতির দুনিয়ায়। এর আগে পুওর ইকনমিক্স বইটি জেরাল্ড লোব পুরস্কারে ভূষিত হয়েছে।

Comments
Loading...