লক্ষ্মীপুজোর শুভেচ্ছা জানিয়ে বাবুল সুপ্রিয়র পোস্ট করা ছবি ঘিরে কেন বিতর্ক জানেন? বিজেপিকে বাঙালি বিরোধী বলে ফের কটাক্ষ তৃণমূলের

বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না বঙ্গ বিজেপির। কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোয় শুভেচ্ছা জানানো নিয়ে বিতর্কে জড়িয়ে পড়লেন আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। রাজ্যবাসীকে লক্ষ্মী পুজোর শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে ব্যবহার করলেন যে ছবি, তাতে নেই লক্ষ্মীর বাহন পেঁচা। ছবিতে দেবী লক্ষ্মীর চার হাত। বিজেপি বহিরাগত এবং অবাঙালিদের দল বলেই বাঙালির লক্ষ্মীপুজোয় উত্তর ভারতে প্রচলিত দেবী লক্ষ্মীর ছবি দিয়ে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন নেতারা, পত্রপাঠ কটাক্ষ তৃণমূলের।

বিজেপির বাঙালিয়ানায় জল আছে। রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের এই আক্রমণ নতুন নয়। এবার সেই সূত্রেই বিতর্কে জড়ালেন বাবুল সুপ্রিয়। শুক্রবার সবাইকে কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোর শুভেচ্ছা জানিয়ে একটি ট্যুইট করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। সেখানে কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোর শুভেচ্ছা জানান বাবুল। কিন্তু গোল বেঁধেছে সেখানে ব্যবহৃত ছবিকে নিয়ে।

কোজাগরী পূর্ণিমায় বাঙালি যে দেবী লক্ষ্মীর আবাহন করে তাতে বাহন হিসেবে থাকে পেঁচা এবং দেবী লক্ষ্মীর দুটি হাত। অথচ বাবুলের পোস্ট করা দেবী লক্ষ্মীর ছবি যেন অনেকটাই ভিন্ন। চার হাত বিশিষ্ট দেবী পদ্মাসনে বসে বরাভয় প্রদান করছেন।

বিজেপি সাংসদের এই পোস্টের পরই আসরে নেমে পড়ে তৃণমূল। যে বিজেপিকে বরাবর অবাঙালির দল বলে আক্রমণ করা হয়, তারই সদস্য যদি উত্তর ভারতের দেবী লক্ষ্মীর ছবি দিয়ে বাঙালিকে কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোর শুভেচ্ছা জানান, তাতেই কি সব স্পষ্ট হয় না? প্রশ্ন এক তৃণমূল নেতার।

বাবুলের পোস্টের পরই তাতে এই পার্থক্যের দিকে ইঙ্গিত করে একাধিক কমেন্টও আসে। তবে বাবুল সুপ্রিয় ছবি বদলাননি। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন, আসানসোলের সাংসদ সচেতনভাবে দেবী লক্ষ্মীর ছবি পোস্ট করেছিলেন কিনা জানা নেই কিন্তু বাঙালির কোনও উৎসবে নির্দিষ্ট সেই ছবি দিয়ে শুভেচ্ছা জানালেই বিতর্ক হোত না। যদিও বিজেপিকে বাঙালি বিরোধী হিসেবে তুলে ধরার এই হাতেগরম সুযোগ হাতছাড়া করেনি রাজ্যের শাসক দল। তৃণমূলের দাবি, বাঙালিকে কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোর শুভেচ্ছা জানানোর অছিলায় বাবুল জেনেশুনেই ওই ছবি পোস্ট করেছেন।

বঙ্গ বিজেপির সংগঠনে ব্যাপক রদবদল শুরু হয়েছে। দিলীপ ঘোষ বনাম মুকুল-কৈলাস দ্বন্দ্ব মেটাতে না পেরে বিরক্ত দিল্লির বিজেপি নেতৃত্ব বাংলার রাশ নিজেদের হাতে নিয়েছে বলেও গুঞ্জন। এই সিদ্ধান্তকে আগেই অবাঙালি বিজেপির আসল রূপ হিসেবে আখ্যা দিয়ে আক্রমণ শানিয়ে রেখেছে তৃণমূল। এবার মুকুল লবির অন্যতম সদস্য হিসেবে পরিচিত বাবুল সুপ্রিয় কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোর দিন উত্তর ভারতে প্রচলিত দেবী লক্ষ্মীর ছবি দিয়ে বাঙালিকে শুভেচ্ছা জানানোর ঘটনায় বিজেপির বাঙালি বিরোধী স্বরূপই ফের প্রকাশ্যে চলে এল বলে দাবি করছেন তৃণমূল নেতারা। তাঁদের প্রশ্ন, এরপরও বাঙালি বিজেপিকে ভরসা করবে? বোঝা যাবে ব্যালট বাক্স খুললে।

Comments
Loading...