রাজ্যের নয়া উদ্যোগ: অটোমেটেড কিচেনে দৈনিক ২ হাজার শিশুর মিড ডে মিল

প্রাথমিক বিদ্যালয় ও শিশু শিক্ষা কেন্দ্রগুলিতে শিশুদের মিড ডে মিলের জন্য এবার অটোমেটেড কিচেনের ব্যবস্থা করতে চলেছে রাজ্য সরকার। আগামী সেপ্টেম্বর মাস থেকে পূর্ব বর্ধমানের ভাতারের কিষান মান্ডিতে এই প্রকল্পের সূচনা হবে বলে জানা গিয়েছে। প্রায় ২ হাজার শিশুর জন্য মিড ডে মিল রান্না হবে।

সেলফ হেল্প গ্রুপের যে মহিলারা এখন মিড ডে মিলের রান্নার কাজে যুক্ত, তাঁদের অটোমেটেড কিচেন থেকে খাবার সরবরাহের দায়িত্ব দেওয়া হবে। এতে একদিকে যেমন প্রাথমিক স্কুল ও শিশু শিক্ষা কেন্দ্রগুলিতে মিড ডে মিলের রান্না নিয়ে বাড়তি দায়িত্ব বা চাপ নিতে হবে না, তেমনি মিড ডে মিল প্রকল্প নিয়ে যে নানারকম অভিযোগ উঠছে, তারও সমাধান সম্ভব হবে, বলে মনে করা হচ্ছে। নির্দিষ্ট তালিকা ও মেনু অনুযায়ী কিষান মান্ডির অটোমেটেড কিচেনগুলিতে সুষম খাবার তৈরি হবে।
শিশু ও গর্ভবতী মহিলাদের পুষ্টিকর খাবার দেওয়ার সময় পরিচ্ছন্নতার দিকে বিশেষ নজর দেওয়া হচ্ছে। পূর্ব বর্ধমান প্রশাসন সূত্রে খবর, প্রথম ধাপে ভাতারের অটোমেটেড কিচেন থেকে একযোগে ১৬ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ৬ টি শিশু শিক্ষা কেন্দ্রে খাবার সরবরাহ করা হবে। তারপর ক্রমশ বাড়ানো হবে কিচেনের আয়তন। পরবর্তী সময়ে জেলায় জেলায় এই আধুনিক প্রক্রিয়ায় মিড ডে মিল পরিবেশন করা হবে। এখন সেলফ হেল্প গ্রুপে যাঁরা মিড ডে মিলের খাবার তৈরি করেন, তাঁদেরকে কিষান মান্ডি থেকে খাবার সংগ্রহ করে তা স্কুলে স্কুলে পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব দেওয়া হবে বলে প্রশাসন সূত্রে খবর।

Comments
Loading...