কেন্দ্র রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গচ্ছিত তহবিলের দখল নিতে চাইছে, অভিযোগ চিদম্বরমের

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সঙ্গে কেন্দ্রের সংঘাতের মধ্যেই সোমবার ১৯ শে নভেম্বর ব্যাঙ্কের রেগুলেটরি বোর্ডের মিটিং। আর এই মিটিংয়ের আগের দিন ব্যাঙ্কের পাশে দাঁড়িয়ে কেন্দ্রকে বিঁধলেন দেশের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী এবং কংগ্রেস নেতা পি চিদম্বরম। আরবিআই-এর কাছে থাকা ৯.৫৯ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক তহবিল কেন্দ্র জোরপূর্বক অধিকার করতে চাইছে বলে অভিযোগ করলেন তিনি। রবিবার চিদম্বরম ট্যুইট করেন, আগামী ১৯ শে নভেম্বর হতে চলেছে সেন্ট্রাল ব্যাঙ্কের স্বাধীনতা রক্ষা ও ভারতের অর্থনীতির পক্ষে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দিন।
আরবিআই রেগুলেটর্স বোর্ডের সঙ্গে ব্যাঙ্কের কিছু বিষয়ে মতান্তর নিয়ে দ্বন্দ্বের সূত্রপাত। রেগুলেটর্স বোর্ডের সদস্য হিসাবে কেন্দ্রীয় সরকার সম্প্রতি মনোনীত করেছে দেশীয় ভাবধারার অর্থনীতিবিদ এস গুরুমূর্তিকে। গুরুমূর্তি কমিটিতে আসার পর পরামর্শ প্রদান ছেড়ে সরাসরি আরবিআই-এর কাজে নাক গলাতে চাইছে বলে অভিযোগ করছেন অনেকে। সেখান থেকেই কেন্দ্রের সঙ্গে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের মতভেদের সূত্রপাত। এই ইস্যুতে সম্প্রতি আরবিআই-এর পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রাক্তন গভর্নর রঘুরাম রাজনও।
আরবিআই-এর সঙ্গে সংঘাত এতটাই চরম হয় যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিজে বৈঠক করেন ব্যাঙ্কের গভর্নর উর্জিত প্যাটেলের সঙ্গে।
কেন্দ্রের দাবি, আরবিআই-এর কাছে ৯.৫৯ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক তহবিল রয়েছে, যা মূলত আপৎকালীন সময়ের জন্য রাখা হয়। কেন্দ্রের বক্তব্য, হিসেব অনুযায়ী যে বিপুল পরিমাণ টাকা আরবিআই জমা রেখেছে, তা সেকেলে এবং রক্ষণাত্মক হিসেব। বাস্তবে এত টাকা আপৎকালীন সময়ের জন্য জমা রাখার কোনও প্রয়োজন নেই। তাই কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রকের তরফে আরবিআই-এর কাছে চিঠি পাঠিয়ে ৩.৬ লক্ষ কোটি টাকা (সারপ্লাস) চাওয়া হয়। যদিও কেন্দ্রের এই প্রস্তাব সরাসরি নাকচ করে দেয় আরবিআই। এই বিষয়টি নিয়ে ১৯ শে নভেম্বর আরবিআই-এর রেগুলেটরি বোর্ডের মিটিং। ঠিক তার আগের দিন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর এই ট্যুইট তাৎপর্যপূর্ণ।

Comments
Loading...