বৃষ্টিতে বেহাল মাঠে সাদার্ন সমিতিকে ২-১ গোলে হারাল ইস্টবেঙ্গল, নজর কাড়লেন জুয়ান

কলকাতা লিগের ম্যাচে জয়ে ফিরল ইস্টবেঙ্গল। বড় ম্যাচে ড্রয়ের পর বৃহস্পতিবার সাদার্ন সমিতির বিরুদ্ধে জিতল আলেজান্দ্রো ব্রিগেড। ঘরের মাঠে ইস্টবেঙ্গল জিতল ২-১ গোলে‌। লাল-হলুদের হয়ে গোল দুটি করেন বিদ্যাসাগর সিংহ এবং কোলাডো। সাদার্ন সমিতির হয়ে গোলটি করেন অর্জুন টুডু। এই জয়ের পরে ৫ ম্যাচ খেলে ইস্টবেঙ্গলের পয়েন্ট হল ১০।
তবে এদিন আরও একবার প্রশ্ন উঠে গেল ইস্টবেঙ্গল মাঠের বেহাল দশা নিয়ে। খেলা শুরুর কিছুক্ষণ আগে থেকেই বৃষ্টি নামে ময়দানে। স্বাভাবিকভাবেই ইস্টবেঙ্গল মাঠের অবস্থা খারাপ হতে শুরু করে। এদিন দুই বিদেশি নিয়ে প্রথম একাদশ সাজিয়েছিলেন স্প্যানিশ কোচ আলেজান্দ্রো। উল্টো দিকে সাদার্ন টিডি এবং ইস্টবেঙ্গলের ঘরের ছেলে মেহতাব হোসেনের ভরসা ছিলেন সিরিয়ান মিডফিল্ডার আল আমনা। গোটা ম্যাচেই দুরন্ত খেললেন আমনা। নির্বাচিত হলেন ম্যাচের সেরা ফুটবলার হিসেবেও। বুঝিয়ে দিলেন ভালো খেলার জন্য বর্ষার ভারী মাঠ এবং বয়স তাঁর কাছে কোনও বাধাই নয়।
ইস্টবেঙ্গলের এগিয়ে যাওয়া ম্যাচের ৩৩ মিনিটে। লালরিনডিকা রালতের ভাসানো কর্ণারে প্রথমে ফ্লিক হেড করেন কোলাডো। তারপর ভেসে আসা বল জোরালো হেডে জালে পাঠান বিদ্যাসাগর সিংহ। এরপরের মিনিটেই অবশ্য বক্সের মধ্যে সাদার্নের কালু ওগবাকে ফাউল করার অভিযোগ ওঠে। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই গোললাইনে দাঁড়িয়ে ইস্টবেঙ্গলের নিশ্চিত পতন বাঁচান লাল-হলুদ ডিফেন্ডার আশির আখতার। ৬২ মিনিটে আবার লালরিনডিকার কর্নার থেকে ইস্টবেঙ্গলের পক্ষে ব্যবধান বাড়ান কোলাডো। শেষ মিনিট কুড়ির জন্য মাঠে নেমেছিলেন নতুন স্প্যানিশ ফুটবলার জুয়ান। কাদা মাঠে প্রথম দিনেই বেশ চোখ টানলেন তিনি। তার বাঁ পা স্বপ্ন দেখাতে পারে ইস্টবেঙ্গল জনতাকে। ৮১ মিনিটে সাদার্নের হয়ে ব্যবধান কমান অর্জুন টুডু। ম্যাচ জয়ের পরেও মাঠের অবস্থা নিয়ে চরম অসন্তোষ প্রকাশ করেন ইস্টবেঙ্গলের স্প্যানিশ কোচ আলেজান্দ্রো মেনিনডেজ।

Comments
Loading...