মাত্র ৭২ ঘণ্টা মুখ্যমন্ত্রিত্ব করে ইস্তফা দিলেন ফড়নবিস, ফের নাটক মহারাষ্ট্রে

মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ গ্রহণের তিন দিন বাদেই ইস্তফা দিলেন দেবেন্দ্র ফড়নবিস। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে তিনটের সময় সাংবাদিক বৈঠক করে তিনি জানিয়ে দেন, মহারাষ্ট্রে বিরোধী হিসেবে কার্যকরী ভূমিকা নেবে বিজেপি।
বুধবারের মধ্যেই ফড়নবিস সরকারকে সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণ দিতে হবে, মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশের পর চরম তৎপরতা শুরু হয় বিজেপির মধ্যে। দলীয় বিধায়কদের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করেন ফড়নবিস। এরমধ্যেই এনসিপি নেতা অজিত পাওয়ার উপমুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেন। তার কিছুক্ষণ পরই সাংবাদিক বৈঠক ডেকে নিজের ইস্তফার কথা ঘোষণা করেন ফড়নবিস। বলেন, আপনারা সবাই জানেন, মহারাষ্ট্রের জনাদেশ ছিল বিজেপির পক্ষেই। যেহেতু আমরা কম আসনে লড়াই করেছিলাম, তাই আমাদের হাতে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নেই। তবে বেশি আসনে লড়াই করলে আজ অন্য গল্প হত। এরপরেই আস্থাভোটে না গিয়ে নিজের ইস্তফার কথা ঘোষণা করেন ফড়নবিস। তবে তিনি এও জানিয়ে দেন, যে মুখ্যমন্ত্রিত্বের জন্য শিবসেনা এখন লড়াই করছে, জোট তৈরির সময় তাদের কোনও প্রতিশ্রুতি দেয়নি বিজেপি। ফড়নবিস জানান, মহারাষ্ট্রে বিরোধী হিসেবে কার্যকরী ভূমিকা নেবে বিজেপি।
অন্যদিকে, শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত বলেন, অজিত দাদা (পাওয়ার) ইস্তফা দিয়ে জানিয়েছেন, তিনি আমাদের সঙ্গেই রয়েছেন। উদ্ধব ঠাকরেই আগামী পাঁচ বছরের জন্য মুখ্যমন্ত্রী থাকছেন।
Comments
Loading...