হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ওটিপি চেয়ে লোক ঠকাচ্ছে হ্যাকাররা, জেনে নিন কিভাবে বাঁচবেন এই নতুন SCAM থেকে

ডিজিটাল দুনিয়ায় যত নিত্যনতুন পদ্ধতি বের হচ্ছে, ততোই বাড়ছে প্রতারণা। একের পর এক নতুন স্ক্যামের খবর উঠে এসেছে কাগজের শিরোনামে। এবার নতুন পন্থা অবলম্বন করে নিয়েছে প্রতারণাকারীরা। সম্প্রতি হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের মাথায় টুপি পড়াচ্ছে এই প্রতারণাকারীরা।

নেটবাসীদের কাছে সবথেকে জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপ। আর এই হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে হ্যাকাররা সহজেই প্রতারণা করছে মানুষের সাথে। এই নতুন পদ্ধতিতে হ্যাকাররা প্রথমে আপনার হোয়াৎসঅ্যাপ এ টেক্সট করে আপনার সাথে বন্ধুত্ব করে। তারপর সে আপনার নাম্বারে একটি ওটিপি পাঠিয়ে সেই ওটিপি আপনার থেকে চায়। আর এই ওটিপি দিলেই হ্যাকাররা আপনার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করার সম্পূর্ণ অ্যাক্সেস পেয়ে যাবে। এরপর আপনি আর আপনার একাউন্ট খুলতে পারবেন না আপনার ফোন দিয়ে। তখন হ্যাকাররা আপনার আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধু-বান্ধবের কাছ থেকে বিভিন্ন অজুহাত দিয়ে টাকা চাইতে শুরু করবে।

তবে এই হোয়াটসঅ্যাপ হ্যাকিংয়ের থেকে বাঁচার উপায় রয়েছে। যদি কোন অজানা নাম্বার থেকে আপনার কাছে কোন ওটিপি চায়। তবে ভুলেও কখনো সেটা দেবেন না। আরো একটি উপায় আছে হোয়াটসঅ্যাপে টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন অন করে রাখা। এই অপশনটি অন রাখলে, আপনার অ্যাকাউন্টে কোন লগইন হলেই হোয়াটসঅ্যাপ এর তরফ থেকে একটি ছয় ডিজিটের পিন নাম্বার চাওয়া হবে। এই পিন নাম্বারটি খালি আপনারই জানা থাকবে আর কারো নয়।

হোয়াটসঅ্যাপ সেটিংসে গিয়ে খুব সহজেই এই অপশন থেকে অন করে নিতে পারেন আপনি। প্রথমে সেটিংসের ‘অ্যাকাউন্ট’ অপশনে ট্যাপ করে টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন এনেবল করতে হবে। এরপর নিজের পছন্দমত ছয় ডিজিটের একটি পিন বেছে নিয়ে ওকে করতে হবে। এরপর নিজের অ্যাকাউন্টের সঙ্গে নিজের ইমেইল যুক্ত করে নিন যাতে যেকোনো সময় আপনি টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন রিসেট করতে পারেন। ব্যস তারপর ইমেইল এড্রেস কনফার্ম করে সেভ করে নিন। আপনার টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন এনেবল হয়ে যাবে।

Comments
Loading...