ফের দ্বিপাক্ষিক আলোচনা শুরু করার আবেদন জানিয়ে মোদীকে চিঠি ইমরান খানের

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি পাঠালেন নয়া পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। চিঠিতে মোদীকে, ‘মোদী সাহাব’ বলে সম্বোধন করে ইমরান ২০১৫ সাল থেকে দু’দেশের মধ্যে থমকে থাকা আলোচনা প্রক্রিয়া ফের শুরু করার আবেদন জানিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। দুই দেশের বিদেশমন্ত্রী পর্যায়ে আলোচনার প্রস্তাবও ভারতকে দিয়েছেন ইমরান খান। জানা গিয়েছে, চিঠিতে ইমরান লিখেছেন, ‘সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতেও তাঁরা ভারতের সঙ্গে কথা বলতে রাজি আছেন। পাক প্রধানমন্ত্রী হিসাবে ইমরান নির্বাচিত হওয়ার পর তাঁকে শুভেচ্ছা জানিয়ে চিঠি পাঠিয়েছিলেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।
সেই চিঠির প্রসঙ্গ উল্লেখ করে ইমরান লিখেছেন, ‘গঠনমূলক সহযোগিতার’ মাধ্যমে দুই দেশ এগিয়ে যেতে পারবে, নরেন্দ্র মোদীর এই বক্তব্যের সাথে তিনি একমত। উল্লেখ্য, সম্প্রতি নির্বাচনে জয়ের পরই প্রথম ভাষণে ইমরান বলেছিলেন, উপমহাদেশের শান্তি প্রতিষ্ঠায় ভারত এক পা এগোলে পাকিস্তান দু’পা বাড়াতে রাজি আছে। জানা গেছে, গত ১৪ ই সেপ্টেম্বর মোদীকে এই চিঠিটি পাঠান ইমরান। কিন্তু উল্লেখযোগ্যভাবে তার বয়ান প্রকাশ্যে এল আন্তর্জাতিক সীমান্তে পাক সেনারা এক ভারতীয় জওয়ানের গলা কেটে নিয়েছে এই অভিযোগ ওঠার একদিন পর। বিষয়টি নিয়ে পাক রেঞ্জারদের কাছে ইতিমধ্যেই ভারতীয় সেনার তরফে ক্ষোভ জানানো হয়েছে।
চিঠিতে ইমরান আশা প্রকাশ করেছেন, কাশ্মীর, সিয়াচেন, স্যর ক্রিকসহ অন্যান্য যে বিষয়ে দু’দেশের মধ্যে মতভেদ আছে, তা আলাপ আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা সম্ভব হবে ও দুই দেশের পরবর্তী প্রজন্ম প্রতিবেশী এই দুই দেশের উন্নত সম্পর্কের সাক্ষী থাকতে পারবে। ইসলামাবাদে পরবর্তী সার্ক শীর্ষ সম্মেলনেও মোদীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ইমরান। রাষ্ট্র সংঘের আসন্ন সাধারণ সম্মেলনের ফাঁকে যাতে নিউ ইয়র্কেই দুই দেশের বিদেশমন্ত্রীর মধ্যে বৈঠক করা যায়, ভারতকে তা ভেবে দেখতে অনুরোধ করেছেন ইমরান।

Comments
Loading...