মাঝ গঙ্গায় জন্মদিন কিংবা জরুরি মিটিং, বিলাসবহুল হাউসবোট পরিষেবা পর্যটন দফতরের

এবার মাঝ গঙ্গায় করা যাবে জরুরি কর্পোরেট মিটিং থেকে জন্মদিন উদযাপন। এই প্রথমবার হুগলি নদীবক্ষে বিলাসবহুল হাউসবোট পরিষেবা শুরু করছে রাজ্যের পর্যটন বিভাগ। ঘন্টা প্রতি ৫ হাজার টাকা ভাড়ায় বিজনেস মিটিং থেকে শুরু করে জন্মদিনের পার্টি সহ যে কোনও অনুষ্ঠান উদযাপনের জন্য ভাড়া পাওয়া যাবে বিলাসবহুল হাউসবোট। গঙ্গাবক্ষে হাউসবোটের যাত্রা শুরু হবে বাবুঘাট থেকে। কমপক্ষে ৩ ঘন্টার জন্য বুকিং করতে হবে এই হাউসবোট। পরিষেবা চালু হওয়ার প্রথম দিকে উইকএন্ড বাদে অন্যান্য দিন ভাড়ায় ১৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় মিলবে। আপাতত বিবাদি বাগের ট্যুরিজম সেন্টার থেকে বুকিংয়ের সুযোগ থাকলেও, শীঘ্রই অনলাইন বুকিংয়ের সুবিধাও চালু হয়ে যাবে বলে ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্যুরিজম ডেভলপমেন্ট কর্পোরেশন লিমিটিড সূত্রে খবর।
সর্বোচ্চ ৩০ জন চড়তে পারবেন এক একটি হাউসবোটে। সাজানো-গোছানো হাউসবোটের ভেতর থাকছে কনফারেন্স হল ও ডাইনিং স্পেস। পুরো ব্যবস্থার নিয়ন্ত্রণের দায়িত্বে থাকবে ডব্লিউবিটিডিসিএল। জরুরি কর্পোরেট মিটিং বা ছোট জমায়েতের জন্মদিন উদযাপনের জন্য এই হাউসবোট পরিষেবা একেবারে অন্যরকম অভিজ্ঞতা দেবে বলে দাবি ডব্লিউবিটিডিসিএলের আধিকারিকদের।
হাউসবোট ছাড়াও ‘সুমঙ্গল’ নামে একটি ভেসেল পরিষেবাও চালু হচ্ছে। ৮০ জন যাত্রী বহনে সক্ষম এই ভেসেলের টিকিটমূল্যও হাউসবোটের মতোই। বুকিংয়ের নিয়মও একই। তবে সুমঙ্গলে অতিরিক্ত সুবিধা হিসাবে থাকছে কিচেনের সুবিধা। সে ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ১ হাজার টাকা দিতে হবে। নদীভ্রমণ ও আনন্দ উদযাপনে নতুন হাউসবোট ও ভেসেল পরিষেবা জনপ্রিয়তার শিখরে উঠবে বলে আশাবাদী রাজ্যের পর্যটন দফতর।

Comments
Loading...