বাড়ি-গাড়ি নেই, নেই কোনও ঋণ, হাতে ৭০ হাজারেরও কম অর্থ, হলফনামায় জানালেন মমতা

তাঁর নামে নেই কোনও গাড়ি। স্থাবর সম্পত্তি বা বাড়ি। নন্দীগ্রামের তৃণমূল প্রার্থীর হলফনামায় এমনই উল্লেখ রয়েছে। নন্দীগ্রামে এবার তৃণমূল প্রার্থী খোদ মমতা ব্যানার্জি। বুধবারই হলদিয়ায় মনোনয়ন পেশ করেছেন। সেইসঙ্গে হলফনামা দিয়ে জানিয়েছেন সম্পত্তির পরিমাণ।

তৃণমূল নেত্রীর হাতে নগদ অর্থের পরিমাণ মাত্র ৬৯ হাজার ২৫৫ টাকা। হাতে গোনা কয়েকটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এবং সেভিংস সার্টিফিকেট রয়েছে তাঁর। সবমিলিয়ে অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ ১৬ লক্ষ ৭২ হাজার ৩৫২ টাকা ৭১ পয়সা। এছাড়াও ৯ গ্রাম ৭৫০ মিলিগ্রামের অলঙ্কার রয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর। চাষ করার উপযুক্ত কোনও জমিও নেই বলে জানিয়েছেন তিনি। আয়কর, জিএসটি, পুরসভার সম্পত্তি কর বকেয়া নেই বলেও উল্লেখ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। ঋণের বোঝা থেকেও তিনি মুক্ত। এছাড়াও কোনওরকম পৈতৃক সম্পত্তি মালিকও নন তিনি।

আরও পড়ুন- তৃণমূল প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিলের সিদ্ধান্ত খারিজ হাইকোর্টে

২০১৮-১৯ আর্থিক বছরে মমতার বার্ষিক আয় ছিল ২০ লক্ষ ৭১ হাজার ১০ টাকা। এরপর সেই আয়ের পরিমাণ কিছুটা কমে যায় ২০১৯-২০ আর্থিক বছরে। সেইসময় মমতার আয় দাঁড়ায় বছরে ১০ লক্ষ ৩৪ হাজার ৩৭০ টাকা।

হলফনামায় মমতা ব্যানার্জির শিক্ষাগত যোগ্যতার সম্পর্কে জানানো হয়েছে। ১৯৮২ সালে তৃণমূল নেত্রী যোগেশ চন্দ্র চৌধুরী কলেজ থেকে আইনে স্নাতক হন। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর।

Comments
Loading...