সিপিএমকে হারাতে লেনিন, মার্ক্সের মূর্তি ভাঙতে হয়নি, এখন বিজেপি বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙে বাংলাকে অপমান করছেঃ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

৩৪ বছরের বাম সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে রাজ্যের শাসক দল হিসেবে উঠে আসতে লেনিন বা কার্ল মার্ক্সের মূর্তি ভাঙতে হয়নি তৃণমূলকে, এত বছরের সরকার বদলের পর রাজ্যে খুনোখুনি হয়নি, কলেজ স্ট্রিটে বিদ্যাসাগরের মূর্তির পুনঃস্থাপন অনুষ্ঠানে মন্তব্য করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

লোকসভা ভোটের আগে কলকাতায় অমিত শাহের রোড শো ঘিরে নজিরবিহীন গণ্ডগোল হয় কলকাতার বিধান সরণিজুড়ে। বিদ্যাসাগর কলেজের ভেতর ঢুকে ভেঙে ফেলা হয় বাংলার নবজাগরণের প্রাণপুরুষ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের আবক্ষ মূর্তি। ঘটনায় রাজ্য রাজনীতিতে তীব্র আলোড়ন পড়ে, বিজেপি-তৃণমূল একে অন্যের বিরুদ্ধে এই ঘটনার দায় চাপালেও, এখনও পরিষ্কার হয়নি কারা সেদিন মূর্তি ভাঙার কাজে যুক্ত ছিল।
মঙ্গলবার কলেজ স্ট্রিটে বিদ্যাসাগরের মূর্তির পুনঃস্থাপন অনুষ্ঠানে ফের বিজেপির দিকে অভিযোগের আঙুল তোলেন মমতা। তাঁর অভিযোগ, সেদিনের ঘটনায় পরিষ্কার দেখা গিয়েছে, গেরুয়া পোশাক পরা কয়েকজন বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙছে। তাঁর অভিযোগ, ইচ্ছাকৃতভাবে বাংলার সংস্কৃতির ওপর, বাংলার মননে আঘাত হানতে চেয়েছে বিজেপি। তাই বিজেপি এই সব কাণ্ড ঘটাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন মমতা। তাঁর অভিযোগ, ৩৪ বছরের বাম সরকার বদলেছে ২০১১ সালে। তখন রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসাও ঘটেনি, আর কার্ল মার্ক্স বা লেনিনের মূর্তি ভাঙতে হয়নি। রাজ্যে লোকসভা ভোট পরবর্তী হিংসার ঘটনা বিজেপির পরিকল্পনা বলে দাবি করেছেন তৃণমূল নেত্রী। তাঁর খোঁচা, এই সবই বিজেপির সংস্কৃতি। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, ‘প্ল্যান’ করে এ সব ঘটানো হচ্ছে। বাংলাকে অপমান করতে পরিকল্পনামাফিক রাজা রামমোহন রায়, বিদ্যাসাগর প্রমুখ মনীষীকে গালাগাল করা হচ্ছে। বিদ্যাসাগরের মূর্তির পুনঃপ্রতিষ্ঠার অনুষ্ঠানে মমতা বলেন, যাঁরা বাংলাকে ভালোবাসেন, বাঙালির সংস্কৃতির ওপর যে আঘাত হানা হচ্ছে তা যেন কেউ মেনে না নেন। মমতা বলেন, বাংলাকে গুজরাত বানানোর প্রয়াস চলছে, দাঙ্গাবাজদের হাত থেকে বাংলার ঐতিহ্যকে রক্ষা করার জন্য রাজ্যবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আবেদন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
মূর্তি পুনঃস্থাপনের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েও বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ করেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যপালের প্রধানমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করা প্রসঙ্গে কোনও মন্তব্য না করলেও, রাজ্যে ৩৫৬ ধারা প্রয়োগ নিয়ে প্রশ্নের জবাবে বলেন, অত সোজা নয়। বিজেপিকে এত ভয় পাওয়ার কিছু নেই।

Comments are closed.