আদানি গ্রুপকে সরিয়ে তিরুবনন্তপুরম বিমানবন্দর রক্ষণাবেক্ষণ ও পরিচালনার দায়িত্ব দেওয়া হোক সরকারি সংস্থার হাতে, মোদীকে চিঠি বিজয়নের

টেন্ডার প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির অভিযোগে আগেই কেরল হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল কেরল সরকার। এবার দেশের ৬টি বিমানবন্দরের রক্ষণাবেক্ষণ ও পরিচালনার বরাত পাওয়া আদানি গোষ্ঠীকে তিরুবনন্তপুরম আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দায়িত্ব না দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখলেন কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। চিঠিতে তিনি প্রধানমন্ত্রীর দ্রুত হস্তক্ষেপ চেয়ে কেরালা স্টেট ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন (কেএসডিআইসি)-এর হাতেই এই দায়িত্ব তুলে দিতে সওয়াল করেছেন।
আদানি গোষ্ঠী বিমানবন্দর রক্ষণাবেক্ষণের কিছুই জানে না, কিন্তু নরেন্দ্র মোদীকে খুব ভালো চেনে, বলে আগেই ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করেছিলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী তথা সিপিএম পলিটব্যুরো সদস্য পিনারাই বিজয়ন। টেন্ডার প্রক্রিয়ায় বড়সড় কেলেঙ্কারি হয়েছে বলেও অভিযোগ করেছিলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী।
শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীকে পাঠানো চিঠিতে কেরালার মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, কেন্দ্র বিমানবন্দরগুলো রক্ষণাবেক্ষণ ও পরিচালনার দায়িত্ব এমন একটি বেসরকারি সংস্থাকে দিতে চাইছে যাদের বিমানবন্দর পরিচালনার কোনও পূর্ব অভিজ্ঞতাই নেই। বিজয়নের মতে, কেরালার কোচি ও কান্নুর বিমানবন্দরের দায়িত্ব নেওয়া কোম্পানি ভালো কাজ করছে। তাই একই সংস্থাকে তিরুবনন্তপুরম বিমানবন্দরের দায়িত্ব দেওয়া হলে তা কেন্দ্র ও রাজ্য, দু’তরফের পক্ষেই লাভজনক বলে প্রধানমন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে জানান কেরলের মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি, কেএসডিআইসি যে আদানি গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে কেরল হাইকোর্টে মামলা করেছে, চিঠিতে তা’ও উল্লেখ করেন মুখ্যমন্ত্রী বিজয়ন।

Comments
Loading...