অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায় বামপন্থী! কটাক্ষ দেশের রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের

‘আপনারা সবাই জানেন অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায় বামপন্থী  চিন্তাধারার মানুষ। দেশের মানুষ তাঁর ন্যায় প্রকল্পের চিন্তাধারাকে খারিজ করেছে।’ বিজেপির সাংসদ অনন্তকুমার হেগড়ের পর সদ্য নোবেলজয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের ।
শুক্রবার এক সাংবাদিক বৈঠক থেকে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘বামপন্থী’ বলে কটাক্ষ করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। তিনি বলেন, নোবেল জয়ের জন্য অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে অভিনন্দন। কিন্তু সবাই তো জানেন অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়ের চিন্তা-ভাবনা পুরোপুরি বামপন্থী। এখানেই থামেননি পীযূষ গোয়েল। বলেন, অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায় যে ন্যায় প্রকল্পের প্রশংসা করেছিলেন, সেই চিন্তাধারাকে দেশের মানুষ খারিজ করে দিয়েছে।
গত ১৪ অক্টোবর অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নোবেল জয়ের পর প্রায় একই সুরে তাঁকে কটাক্ষ করেছিলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা কর্ণাটকের উত্তর কন্নড়ের বিজেপি সাংসদ অনন্তকুমার হেগড়ে। ট্যুইটারে লিখেছিলেন, ২০১৯ সালে নোবেল পুরস্কারে ভূষিত হলেন সেই মানুষটি, যিনি ‘পাপ্পু’র (রাহুল গান্ধী) হাত ধরে ভারতে কর বৃদ্ধি এবং মুদ্রাস্ফীতির পরামর্শ দিয়েছিলেন। অনন্ত কুমার হেগড়ের সুরেই এবার মোদী সরকারের মন্ত্রীও নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদকে আক্রমণ করলেন।
নোবেলজয়ী বাঙালি অর্থনীতিবিদকে মোদী সরকারের মন্ত্রী পিযূষ গোয়েলের এহেন আক্রমণের তীব্র সমালোচনা করেছে বিরোধীরা।
প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের আগে কংগ্রেসের ইশতাহারে ন্যূনতম আয় যোজনার (ন্যায়) কথা ঘোষণা করেছিলেন কংগ্রেস। এ ব্যাপারে অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরামর্শ নিয়েছিলেন কংগ্রেসের তৎকালীন সভাপতি রাহুল গান্ধী। অন্যদিকে, নোবেল জয়ের পর অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায় ভারতের অর্থনীতি প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করেছিলেন।

Comments
Loading...