যাদবপুরের মেইন হোস্টেলে শুরু হচ্ছে সেফ হোম

করোনার জেরে বহুদিন বন্ধ বিশ্ববিদ্যালয়

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের মেইন হোস্টেলের একাংশকে কোভিড আক্রান্তদের জন্য সেফ হোম বানানোর অনুমিত দিল ইউনিভার্সিটি কর্তৃপক্ষ।

করোনার জেরে বহুদিন বন্ধ বিশ্ববিদ্যালয়। কয়েকদিন আগেই যাদবপুরের একদল ছাত্রের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসকে সেফ হোম করার আর্জি জানিয়ে উপাচার্য সুরঞ্জন দাসকে চিঠি দেওয়া হয়। অধ্যাপকেরাও ছাত্রদের দাবিকে সমর্থন জানিয়ে সরকারের কাছে প্রস্তাব পাঠান।

জানা যাচ্ছে, প্রস্তাবে সম্মতি জানিয়ে কলকাতা পুরসভার প্রতিনিধি দল হোস্টেল চত্বর পরিদর্শন করে যান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল হোস্টেলের ছয় হাজার স্কোয়ারফুট জায়গা সেফ হোমের জন্য দেওয়া হবে, কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর। উপাচার্য জানিয়েছেন, ছাত্ররা কেউ কেউ স্বেচ্ছায় সেফ হোমে স্বেচ্ছাসেবকের কাজ করলেও, হোমটি পরিচালনার সমস্ত দায়দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে।
লকডাউনের প্রথম পর্যায়েও যাদবপুরের ছাত্রদের একাংশ একাধিক সামাজিক কাজে এগিয়ে এসেছিলেন। এবারেও মূলত তাঁদেরই উদ্যোগে শহরে শুরু হতে চলেছে সেফ হোম।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে কার্যত নাজেহাল গোটা দেশ। হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণের সংখ্যা। গত ২৪ ঘন্টায় পশ্চিবঙ্গে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ২০,৮৩৯ জন। রাজ্যজুড়ে হাসপাতালের বেডের সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে সেফ হোমের চাহিদাও। এই পরিস্থিতিতে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এই পদক্ষেপকে কুর্নিশ জানিয়েছেন অনেকে।

Comments
Loading...