অমিতাভ বচ্চনের আকাশছোঁয়া সাফল্যে সৌমিত্রর অবদান সবচেয়ে বেশি! জানেন কি?

বলিউডে অমিতাভ বচ্চনের সাফল্যের শুরু রাজেশ খান্নার বিপরীতে আনন্দ ছবিতে। কিন্তু জানেন কি গগনচুম্বী এই সাফল্যের পিছনে বিরাট অবদান সৌমিত্র চ্যাটার্জির? অবাক হচ্ছেন? 

একটি সাক্ষাৎকারে সৌমিত্র চ্যাটার্জি নিজেই জানিয়েছিলেন ঘটনার কথা।

১৯৭১ সাল। বম্বে থেকে ফোন এলো কলকাতায়। ফোনের একদিকে সৌমিত্রবাবু, অন্যদিকে পরিচালক হৃষীকেশ মুখার্জি। বিখ্যাত পরিচালক সেদিন বলেছিলেন, সৌমিত্র তোমাকে আমার পরের ছবিতে চাই। সৌমিত্রর না বলার কোনও কারণ ছিল না। এরপর নিজের আগামী ছবির গল্প বলেন পরিচালক। তাঁকে যে চরিত্রের জন্য ফোন, তাও সেদিন বলেছিলেন হৃষীকেশ মুখার্জি। সৌমিত্র চ্যাটার্জিকে হৃষীকেশ প্রস্তাব দিয়েছিলেন আনন্দ ছবিতে ডাক্তার ভাস্কর ব্যানার্জির চরিত্রে অভিনয়ের। উলটোদিকে থাকবেন রাজেশ খান্না। কিন্তু সমস্যা হয় ডেট নিয়ে। ইতিমধ্যেই যে একাধিক বাংলা ছবিতে কাজ করবেন বলে কথা দিয়ে ফেলেছেন! 

শেষ পর্যন্ত হৃষীকেশ মুখার্জির প্রস্তাব ফিরিয়েই দিলেন সৌমিত্র চ্যাটার্জি। সৌমিত্রর ছেড়ে যাওয়া জুতোতে তখন পা গলান অমিতাভ বচ্চন। বাকিটা ইতিহাস।

শ্যাম বেনেগাল থেকে আজকের অনিরুদ্ধ রায়চৌধুরি, বারবার হিন্দি ছবির প্রস্তাব এসেছে গলফ গ্রিনের বাড়িতে। কখনও সময়ের অভাব আবার কখনও চরিত্র পছন্দ না হওয়া, সৌমিত্র চ্যাটার্জি ফিরিয়ে দিয়েছেন সবই।

Comments
Loading...