মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার উৎখাতের ডাক অমিত শাহর, দিবাস্বপ্ন বলছে তৃণমূল।

পশ্চিমবঙ্গ থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার উৎখাত করার ডাক দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। বৃহস্পতিবার পুরুলিয়ার জনসভা থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তীব্র আক্রমণ করে অমিত শাহ চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে বলেন, ‘সন্ত্রাস করে পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতায় থাকতে পারবে না তৃণমূল’।
পঞ্চায়েত ভোটের পর পুরুলিয়ার বলরামপুরে দুই বিজেপি কর্মীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর জেরে সেই জেলায় অমিত শাহের সভার আয়োজন করে রাজ্য বিজেপি। সমাবেশের শুরুতেই পঞ্চায়েত ভোটের উল্লেখ করে অমিত শাহ অভিযোগ করেন, ‘তাদের কর্মীদের প্রার্থী হতে দেওয়া হয়নি। রাজ্যে ২ কোটি মানুষ ভোট দিতে পারেননি। বিজেপি কর্মীদের খুন করা হয়েছে। তা সত্ত্বেও বিজেপি ভালো ফল করেছে। সামনের লোকসভা ভোট থেকেই রাজ্যে বদল হবে বলে’। অমিত শাহর ঘোষণা, ‘১৯ টি রাজ্যে বিজেপি সরকার হয়েছে। এবার বাংলাতেও বিজেপি সরকার হবে’। রাজনৈতিকভাবে তৃণমূলকে তীব্র আক্রমণের পাশাপাশি রাজ্যের উন্নয়নের প্রসঙ্গ তুলেও রাজ্য সরকারের সমালোচনা করেন। অভিযোগ করেন, ‘কেন্দ্র টাকা দিলেও রাজ্যে উন্নয়নের কাজ হচ্ছে না’।
আগামী ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের প্রসঙ্গ তুলে বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতির ঘোষণা, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লিতে মহাজোট করার চেষ্টা করছেন। তাতে কিছু এসে যায় না, কিন্তু তৃণমূলের পায়ের তলা থেকেই বাংলার মাটি সরে যাচ্ছে। লোকসভা ভোটে এই রাজ্য থেকে বিজেপি অন্তত ২২ টি আসন পাবে বলে দাবি করেন তিনি।
এদিন অমিত শাহর এই বক্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসও। তৃণমূল শিবিরের দাবি, দিবাস্বপ্ন দেখছেন বিজেপি সভাপতি। পাশাপাশি রাজ্যের শাসক দলের অভিযোগ, টাকা ছড়িয়ে নোংরা রাজনীতি করছে বিজেপি। বাংলার মানুষ তার জবাব দেবেন। অমিত শাহের সভার মাঠেই পালটা সভা ডাকা হয়েছে তৃণমূলের পক্ষ থেকে।

Comments
Loading...