ভিত্তিগত মতবাদ রুখতে বিরোধী ক্যাম্প রয়েছে দেশে, দাবি বিপিন রাওয়াতের, বিতর্ক

দেশে ভিত্তিগত মতবাদ বা আদর্শগত অবস্থানের বাড়বাড়ন্ত রুখতে ভারতের রয়েছে প্রতিরোধী ক্যাম্প। সেখানেই পাঠানো দরকার এমন প্রতিবাদীদের, এমনই বিস্ফোরক দাবি করলেন দেশের প্রথম চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত। বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতি ভবনে আয়োজিত রাইসিনা ডায়লগস অনুষ্ঠানের এক আলোচনাসভায় একথা জানান বিপিন রাওয়াত। তাঁর আরও দাবি, দেশের বহু জায়গায় ১০-১২ বছরের বাচ্চাদের ভিত্তিগত মতবাদের শিক্ষা দেওয়া হয়। এই ধরনের ক্যাম্পে সেই বাচ্চাদের পৃথক করে রাখার ব্যবস্থা আছে। যাতে তাদের মূলস্রোতে ফেরানো যায়।
রাওয়াত আরও বলেছেন, ‘কাশ্মীরে মৌলবাদ কী আকার ধারণ করেছে তা আমরা দেখেছি।’ তাঁর মতে, কাশ্মীরে এমন অনেক মানুষ আছে যাদের পুরোপুরি মৌলবাদে শিক্ষিত করা সম্ভব হয়েছে। এদের চিহ্নিত করে পৃথক করে রাখা উচিত। এই ক্যাম্পগুলিকে de radicalisation camp বলে দাবি করেছেন রাওয়াত।
বিপিন রাওয়াতের আরও দাবি, পাকিস্তানেও এরকম ক্যাম্প রয়েছে। কারণ তারা জানে, যে সন্ত্রাসবাদকে তারা মদত দিচ্ছে, তা একদিন তাদের উপরই আঘাত হানতে পারে। বিভিন্ন বিভাগে ভাগ করে এই আদর্শগত ভাবধারার মানুষকে এই ক্যাম্পে আনতে হবে বলে মনে করেন তিনি। ভবিষ্যতের কথা ভেবেই এই মানুষদের মূল স্রোতে ফেরানো উচিত বলেই মত চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের। স্বাভাবিকভাবেই বিপিন রাওয়াতের এই মন্তব্য ঘিরে তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে।

 

Comments
Loading...