কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সই জাল করে বিতর্কে বিজেপির জাতীয় সাধারণ সম্পাদক ‘চৌকিদার’ পি মুরলীধর রাও, এফআইআর দায়ের

চৌকিদার চোর কিনা তা এখনও জানা না গেলেও এবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সই জালিয়াতির অভিযোগ উঠল বিজেপির জাতীয় সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত জাতীয় সম্পাদক পি মুরলীধর রাওয়ের নিজস্ব ট্যুইটার হ্যান্ডেলে আবার নামের আগে রয়েছে চৌকিদার শব্দটিও! যা নিয়ে বেজায় বিড়ম্বনায় বিজেপি।

অভিযোগ, বাণিজ্য মন্ত্রকের অধীন একটি সংস্থার চেয়ারম্যান করে দেওয়ার কথা বলে এক দম্পতির কাছ থেকে ২.১৭ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন চৌকিদার পি মুরলীধর রাও। দম্পতির কাছে নিজের বিশ্বাসযোগ্যতা বাড়াতে তৎকালীন কেন্দ্রীয় শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের সই জাল করারও অভিযোগ রয়েছে পি মুরলীধর রাও, তাঁর ঘনিষ্ঠ কিশোর রাও সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে। একটি স্থানীয় আদালতের নির্দেশে পুলিশ এফআইআর দায়ের করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

ঘটনার সূত্রপাত ২০১৫ সালে। অভিযোগ, হায়দরাবাদের বাসিন্দা জনৈক টি মহিপাল রেড্ডিকে কেন্দ্রীয় বানিজ্য মন্ত্রকের সংস্থা ফার্মা এক্সিলের চেয়ারম্যান করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ২ কোটি ১৭ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেন বিজেপির জাতীয় সাধারণ সম্পাদক পি মুরলীধর রাও ও তাঁর সঙ্গীরা। দম্পতির অভিযোগ, ২০১৫ সালের নভেম্বর মাসে বিজেপি নেতা পি মুরলিধর রাওয়ের ঘনিষ্ঠ ভি ঈশ্বর রেড্ডি তাঁর স্বামীকে ফার্মাএক্সিলের চেয়ারম্যান করার প্রস্তাব দেন। প্রথমে তাঁরা অনিচ্ছা প্রকাশ করলেও পরবর্তীতে পি মুরলীধর রাও ও তাঁর সঙ্গীদের চাপাচাপিতে পদ নিতে রাজি হন বলে অভিযোগ পত্রে লিখেছেন দম্পতি। অভিযোগ, বলা হয়, কেন্দ্রীয় সরকারের যে কোনও সংস্থায় চাকরি পাইয়ে দেওয়ার ক্ষমতা তাদের আছে। তখনই কেন্দ্রীয় বাণিজ্য মন্ত্রী নির্মলা সীতারামণের সই করা চিঠিও দেখানো হয়। এরপরে তাঁদের কাছে ২ কোটি ১৭ লক্ষ টাকা নেন বিজেপির জাতীয় সাধারণ সম্পাদক, বলে এফআইআরে জানিয়েছেন অভিযোগকারী টি প্রাভার্না রেড্ডি।
কিন্তু টাকা নেওয়ার পরেই টালবাহানা শুরু করেন অভিযুক্তরা। এমনকী দম্পতিকে মুখ না খুলতে হুমকিও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে অবশ্য টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন এক অভিযুক্ত, বলে সূত্রের খবর। যদিও অভিযুক্ত বিজেপি নেতা পি মুরলীধর রাও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। লোকসভা ভোটের মুখে পুরো ঘটনাই মিথ্যা বলে দাবি করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সই জাল করে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে কোটি টাকা হাতানোর ঘটনায় অভিযুক্ত বিজেপির জাতীয় সাধারণ সম্পাদক ‘চৌকিদার’ পি মুরলীধর রাও।

Comments
Loading...