হাওড়ার প্রশাসনিক বৈঠকে রণংদেহি মুখ্যমন্ত্রী! উন্নয়নমূলক কাজ নিয়ে ক্ষোভের মুখে মন্ত্রী থেকে মেয়র

হাওড়ার প্রশাসনিক সভায় রণংদেহি মূর্তিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের মন্ত্রী তথা হাওড়া জেলার তৃণমূলের সভাপতি অরূপ রায় থেকে শুরু করে হাওড়া পুরসভার মেয়র, কাউন্সিলার, দলীয় নেতা এবং প্রশাসনিক কর্তাদের কড়া বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। রেশন কার্ড, রাস্তা, বস্তি উন্নয়ন থেকে শুরু করে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের তালিকা ধরে ধরে এদিন দলীয় নেতা এবং প্রশাসনিক কর্তাদের তুলোধোনা করেন মুখ্যমন্ত্রী।
লোকসভা ভোটের পর থেকেই দলীয় সংগঠনে একাধিক পরিবর্তন এনেছেন তৃণমূল নেত্রী। সেই সঙ্গে সরকারি প্রকল্পে কাটমানি থেকে শুরু করে বিভিন্ন দুর্নীতি বন্ধ করতে দলীয় নেতা, কাউন্সিলার, বিধায়ক ও মন্ত্রীদের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মমতা। এবার হাওড়ার প্রশাসনিক সভাতেও মুখ্যমন্ত্রীর ভর্ৎসনার মুখে পড়লেন মন্ত্রী অরূপ রায় থেকে শুরু করে হাওড়ার মেয়র রথীন চক্রবর্তী সহ একাধিক কাউন্সিলার।
হাওড়ার ওলাবিবিতলায় কেন রাজ্যের অর্থ মন্ত্রকের অনুমোদন ছাড়াই পাম্পিং স্টেশনের কাজ করা হয়েছে তা নিয়ে রথীন চক্রবর্তীকে প্রশ্ন করেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, এরকম একাধিক কাজই অর্থ মন্ত্রকের তোয়াক্কা না করে ইচ্ছামতো করা হচ্ছে। তৃণমূল নেত্রী বলেন, চেয়ারে বসলে সবাইকে আইন মানতে হবে। কেউ আইনের ঊর্ধে নন। তাঁর কথায়, মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে বসে তিনিও কোনও কাজ অর্থ মন্ত্রকের সম্মতি ছাড়া করেন না। চেয়ারে বসে যা ইচ্ছে তা করার কারও এক্তিয়ার নেই বলে মন্তব্য করেন তিনি।
প্রশাসনিক বৈঠকের আগে হাওড়ার একটি বস্তি পরিদর্শন করেন মুখ্যমন্ত্রী। এই প্রসঙ্গে ক্ষোভ প্রকাশ করে মমতা বলেন, যেখানে বস্তি উন্নয়নের জন্য টাকা দেয় সরকার, সেখানে কেন একটা বস্তিতে মাত্র দুটো বাথরুম? কাউন্সিলারদের উদ্দেশে তৃণমূল নেত্রীর বার্তা, মাঝে-মধ্যে বস্তিতেও তো যেতে পারেন, তাতে জ্ঞান বাড়ে। এলাকার অনেকেরই কেন রেশন কার্ড নেই কাউন্সিলারদের কাছে প্রশ্ন রাখেন মুখ্যমন্ত্রী। মন্ত্রী অরূপ রায়ের উদ্দেশে মমতা বলেন, মন্ত্রী হিসেবে তাঁরও যেমন এলাকা পরিদর্শনে যাওয়ার অধিকার আছে, মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তাঁরও সেই অধিকার রয়েছে। কেন ওয়ার্ড দেখছেন না কাউন্সিলাররা, সরকারি সম্মতি ছাড়া কেন কর্মচারী নিয়োগ হচ্ছে? কাউন্সিলার, মন্ত্রী ও সরকারি আধিকারিকদের উদ্দেশে মমতার বার্তা, সাধারণ মানুষের প্রাপ্য ও প্রাপ্তির মধ্যে যেন ফারাক না থাকে। হাওড়ার নিকাশি ব্যবস্থা, জল, রাস্তা, স্বাস্থ্য থেকে রেশন কার্ড সমস্যা দ্রুত মেটানোর বার্তা দেন মমতা।

Comments
Loading...