বাজপায়ীর শেষকৃত্যে পাকিস্তানের প্রতিনিধি দলে মুম্বই হামলার চক্রী কোলম্যান হেডলির সৎ ভাই, শুরু বিতর্ক

১৭ ই অগাস্ট দিল্লিতে ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপায়ীর শেষকৃত্যে পাকিস্তানের তরফে পাঠানো পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দলে ছিলেন ২৬/১১ মুম্বই হামলার অন্যতম অপরাধী ডেভিড কোলম্যান হেডলির সৎ ভাই ড্যানিয়েল গিলানি! যা নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। শুধু তাই নয়, হেডলির সৎ ভাই গিলালি সেদিন উপস্থিত ছিলেন স্মৃতি-স্থলে বাজপায়ীর শেষকৃত্যেও। এখবর জানাজানি হতেও সরকারের অভ্যন্তরে ছড়িয়েছে অস্বস্তি।
এই মুহূর্তে পাকিস্তানের ফিল্ম সেন্সর বোর্ডের চেয়ারম্যান পদে রয়েছেন পাক আমলা ড্যানিয়েল গিলানি। ১৭ তারিখ গিলানি একটি ট্যুইট মারফত জানান, অটল বিহারী বাজপায়ীর শেষকৃত্যে যোগ দিতে এসে ভারতের বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সঙ্গে দেখা করে পাকিস্তানের তরফে সমবেদনা জানিয়েছেন সে দেশের তদারকী আইনমন্ত্রী সৈয়দ আলি জাফর। তবে সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না ড্যানিয়েল। পরে জানা যায়, তিনি স্মৃতি-স্থলে গিয়েছিলেন।
কেন্দ্রের কিছু শীর্ষ আমলা বিষয়টিকে অস্বস্তিকর বলে ব্যক্তিগত আলাপচারিতায় জানিয়েছেন। তবে সরকারের শীর্ষ মহলের বক্তব্য, ড্যানিয়েলের জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যোগ থাকার কোনও তথ্য তাদের কাছে নেই। তাঁকে ভারতের কোনও ব্ল্যাক লিস্টেও রাখা হয়নি। এমনকী ডেভিড কোলম্যান হেডলির সঙ্গে কোনও সম্পর্কও রাখেন না এই পাক আমলা। তাই সব দিক খতিয়ে দেখেই তাঁকে ভিসা পাঠানো হয়েছিল। আর পাকিস্তান প্রতিনিধি হিসেবে এদেশে কাকে পাঠাবে তাতে ভারত হস্তক্ষেপ করতে পারে না।

ড্যানিয়েল গিলানি

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালের ২৬ নভেম্বর মুম্বইয়ে যে জঙ্গি হামলা হয়েছিল তার অন্যতম অভিযুক্ত ছিলেন পাক বংশদ্ভুত মার্কিন নাগরিক ডেভিড কোলম্যান হেডলি। জঙ্গি হানার আগে তাঁকেই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল এদেশের বিভিন্ন শহর ঘুরে দেখে হামলার স্থান বাছতে। ২০০৯ সালে ধরা পড়েন ডেভিড। পরবর্তীকালে বিচারে দোষী প্রমাণিত হন ডেভিড। বর্তমানে মার্কিন কারাগারে বন্দী তিনি।

Comments
Loading...