গুণগত মান খতিয়ে দেখে তবেই মিষ্টি বিক্রি হবে এবার কালী পুজোয়! জানাল কলকাতা পুরসভা

এই বছর করোনার কারণে দীপাবলির মিষ্টি আর খাবারের গুণমানের দিকে বিশেষ নজর দেওয়া হচ্ছে। বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে কলকাতা পুরসভা। দেখা হবে নানা রেস্তরাঁর তৈরি রান্না খাবারের বিশুদ্ধতা, ব্যবহৃত মশলার গুণমান। ফুড ইনস্পেক্টরদের নিয়ে তৈরি করা হচ্ছে একটি টিম। পুরভবনেই থাকবে একটি কেন্দ্রীয় দল। দুর্গা পুজোর মতো কালী পুজোতেও এই টিম কাজ করবে।
সূত্রের খবর, যদি কোনও ব্যক্তির কোনও দোকান বা রেস্তোরাঁর খাবার নিয়ে অভিযোগ থাকে, তাহলে উপযুক্ত প্রমাণপত্র নিয়ে স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে অভিযোগ জানানো যাবে। এরপরই ওই খাবারের মান খতিয়ে দেখবে ফুড ইন্সপেক্টরদের টিম।

স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রশাসক প্রাক্তন ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ শুক্রবার জানিয়েছেন, ‘পুজোর সময় নানা ওয়ার্ডে খাবারের গুণমান পরীক্ষা করতে পুরসভার ইনস্পেক্টররা ঘুরেছেন। ২০৪টি রেস্তরাঁর খাবার পরীক্ষা করেছেন। ১৯৫টি রেস্তরাঁ থেকে রান্না খাবারের নমুনা সংগ্রহ করেছেন। এর মধ্যে একটি রেস্তরাঁর মান যথেষ্ট খারাপ বলে পুরসভার ল্যাবরেটরি থেকে রিপোর্ট এসেছে। অভিযুক্ত রেস্তরাঁর বিরুদ্ধে পুরআইন মেনে ব্যবস্থা হচ্ছে।”

প্রসঙ্গত, এখনও কলকাতার অনেক মিষ্টির উপরেই কবে লাস্ট ডেট বা ‘বেস্ট বিফোর’ লেখা থাকছে। সেই দেখে কিনতে সুবিধা হচ্ছে ক্রেতাদের।

Comments
Loading...