আগামী সপ্তাহের শুরুতেই মহারাষ্ট্রে শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেসের মিলিঝুলি সরকার গঠন হতে চলেছে বলে সূত্রের খবর। কংগ্রেস সরকারে যোগ দেবে, না বাইরে থেকে শিবসেনা- এনসিপির সরকারকে সমর্থন করবে, সেটা এখনও পরিষ্কার নয়। কংগ্রেস সূত্রের খবর, আর দু’একদিনের মধ্যেই এ ব্যাপারে তাঁদের অবস্থান পরিষ্কার জানিয়ে দেবেন কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী।
এদিকে সনিয়ার নির্দেশেই মল্লিকার্জুন খাড়গে, আহমেদ প্যাটেল, পৃথ্বিরাজ চহ্বানের মতো কংগ্রেস নেতারা শিবসেনা ও এনসিপি নেতাদের সঙ্গে কথা চালিয়ে যাচ্ছেন। এনসিপি এবং কংগ্রেসের পাঁচজন করে নেতাকে নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটি তিন দলের জন্যই ন্যূনতম অভিন্ন কর্মসূচির খসড়া তৈরি করছে। শিবসেনাকে দেখিয়েই সেই খসড়া চূড়ান্ত করা হবে। পরে সনিয়া, শরদ পাওয়ার এবং উদ্ধব ঠাকরের সবুজ সংকেত পেলে তা অনুমোদিত হবে। তিন দলেরই দাবি, ওই কর্মসূচির ভিত্তিতেই নতুন সরকার চলবে। এরই মধ্যে ৫০-৫০ ফর্মুলার ভিত্তিতে মহারাষ্ট্রে সরকার গড়া প্রসঙ্গে যে কথা শিবসেনা বলছে, বিজেপির জাতীয় সভাপতি অমিত শাহ তাকে চ্যালেঞ্জ করেছেন। এক ধাপ এগিয়ে তিনি শিবসেনাকে মিথ্যেবাদীও বলেছেন। বৃহস্পতিবার তার পাল্টা জবাব দিয়েছেন শিবসেনার মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত। তিনি বলেন, উদ্ধব ঠাকরে এবং অমিত শাহের মধ্যে ভোটের আগে মুখ্যমন্ত্রিত্ব নিয়ে যে আলোচনা হয়েছিল, বিজেপি সভাপতি তা প্রধানমন্ত্রীকে জানাননি। তার জন্যই এ সব জটিলতার সৃষ্টি হয়েছে। তিন দলের সরকার গঠনের তৎপরতা প্রসঙ্গে অমিত শাহ বলেন, ক্ষমতা থাকলে ওরা সরকার গড়ে দেখাক।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Subscribe

You may also like