রাজনৈতিক হিংসায় নিহতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা অর্থ সাহায্য ঘোষণা মমতার

রাজনৈতিক হিংসায় মৃতদের ২ লক্ষ টাকা আর্থিক সাহায্য ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। নবান্ন থেকে মমতা ব্যানার্জির ঘোষণা, কোন দল দেখা হবে না। যে পার্টির যে মারা গেছেন তাঁর পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা দেবে রাজ্য সরকার। 

এদিনও মুখ্যমন্ত্রী রাজনৈতিক হানাহানির জন্য বিজেপিকে দায়ী করেন। তাঁর অভিযোগ, কোচবিহারে বিজেপি গুন্ডামি করছে। উদয়নের হাত ভেঙ্গে দিয়েছে। গুন্ডামি, উস্কানি দিচ্ছে বিজেপি বলে অভিযোগ মমতার। তিনি বলেন, রাজ্যে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। বিজেপি এবং তৃণমূল দুই পক্ষেই মৃত্যু হয়েছে সমান সমান, আইএসএফেরও মারা গেছেন একজন, বলেন মমতা। সেই সঙ্গে জানান, আর্থিক সহায়তা মৃত্যুর ক্ষতিপূরণ হতে পারে না, এটা সামান্য আর্থিক সাহায্য মাত্র। মমতা ব্যানার্জি জানান, আর্থিক সাহায্য প্রদানে দল দেখবে না তাঁর সরকার। 

মেদিনীপুরে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীর আক্রান্ত হওয়ার খবরে মমতা বলেন, আমি বুঝতে পারছি না, করোনার মধ্যে বাইরে থেকে এসে কীভাবে কেউ ঘুরে বেড়াতে পারে! একইভাবে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের দল পাঠানো নিয়েও আপত্তি জানান মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, শপথের ২৪ ঘণ্টা কাটেনি এর মধ্যেই টিম পাঠানো শুরু করে দিয়েছে! এরকম আমি জীবনে দেখিনি। 

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্যে ঢোকার আগে আইন আছে আরটি পিসিআর টেস্টের রিপোর্ট দেখাতে হবে। ওরা কারা যে আইন ওদের জন্য আলাদা হবে? মন্ত্রীরা এসে প্ররোচনা দিচ্ছেন বলেও অভিযোগ মমতার। তাঁর আবেদন, মন্ত্রীরা প্ররোচনা দেবেন না। 

এদিন শীতলকুচির নিহতদের পরিবারের একজনকে চাকরি দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

সাংবাদিকরা যখন মুখ্যমন্ত্রীকে হিংসা নিয়ে রাজ্যপালের ট্যুইট নিয়ে প্রশ্ন করেন, মমতা ব্যানার্জি উত্তর দেন, আমি যেমন সারাদিন কাজ করি, ব্যস্ত থাকি, রাজ্যপালও তেমন ব্যস্ত থাকেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভালোই তো!

Comments
Loading...