সুপ্রিম কোর্টের রায়ে কারও জয় হয়নি, কেউ পরাজিতও হয়নি বলে মন্তব্য করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রায় প্রকাশের পর একাধিক ট্যুইটে মোদী বলেন, এখন রামভক্তি বা রহিমভক্তির সময় নয়, সময় হল দেশভক্তির। দেশকে যে কোনও মূল্যে এক রাখতেই হবে। মোদী লেখেন, এই রায় দেশের ঐক্য ও সংহতির পক্ষে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অযোধ্যার জমি বিবাদের মিমাংসা করতে গিয়ে দীর্ঘ জটিল আইনি প্রক্রিয়া চলেছে। সব পক্ষকেই তাদের তরফের যুক্তি ও তথ্য সরবরাহের জন্য আদালত যথেষ্ট সময় দিয়েছে। দেশের মানুষের কাছে এটা অত্যন্ত ভালো খবর যে, বিচারের মন্দির কয়েক দশকের পুরনো এই জমি মামলা আজ সন্তোষজনকভাবে সমাধান করে দিল। প্রধানমন্ত্রী লেখেন, সর্বোচ্চ আদালতের এই রায় বিচার ব্যবস্থার প্রতি সাধারণ মানুষের বিশ্বাসকে মজবুত করবে। আমাদের দেশে হাজার হাজার বছরের পুরনো সৌভ্রাতৃত্বের যে দৃষ্টান্ত রয়েছে, তাকে রক্ষা করতে হবে।
এদিকে অযোধ্যা রায়কে স্বাগত জানিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহও বেশ কয়েকটি ট্যুইট করেন। তিনি বলেন, এই রায় ঐতিহাসিক একটি মাইলস্টোন।  ট্যুইটারে অমিত শাহ লেখেন, শীর্ষ আদালতের এই রায়ের ফলে ভারতের ঐক্য ও সংস্কৃতি আরও দৃঢ় হবে। অন্য একটি ট্যুইটে তিনি সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদেরও শুভেচ্ছা জানান। পাশাপাশি, দেশের সব ধর্ম ও সম্প্রদায়ের মানুষকে এই রায় মেনে ‘এক ভারত, শ্রেষ্ঠ ভারত’ গড়ার কাজে এগিয়ে আসতে আবেদন করেন অমিত শাহ।
শনিবার অযোধ্যা মামলার রায় বেরনোর পরই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির কথা জানতে চান।
সব রাজ্য সরকারের তরফ থেকেই তাঁকে আশ্বস্ত করা হয়, বিকেল পর্যন্ত রায়কে ঘিরে কোথাও কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়নি। তিনি দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতরে দলের শীর্ষ নেতা এবং মুখপাত্রদের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক করেন। সেখানে তিনি নেতা ও মুখপাত্রদের বলেন, রায় সম্পর্কে যেন সংযত হয়ে একই সুরে কথা বলেন।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরণের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Subscribe

You may also like